‘ভারতকে দেখে শেখা উচিত’, ফের নয়াদিল্লির প্রশংসায় পঞ্চমুখ ইমরান খান

05:08 PM Jun 09, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের ভারতের প্রশংসা করলেন প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে যেভাবে নিরপেক্ষ অবস্থান নিয়েছে ভারত, সেই পথেই চলা উচিত পাকিস্তানের, এমনটা জানিয়েছেন ইমরান। একই সঙ্গে বলেছেন, সব ধরণের সামরিক আক্রমণের প্রতিবাদ করছেন তিনি। একটি সাক্ষাতকারে এই কথা বলেছেন ইমরান।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

ইমরান (Imran Khan) বলেছেন, “আমাদের দেশে বিশাল জনসংখ্যা। সেই কারণেই বিশ্বের সব দেশের সঙ্গেই আমাদের সুসম্পর্ক রাখা উচিত। আমাদের নাগরিকদের উন্নতির স্বার্থে যেসব দেশ সাহায্য করবে, তাদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখা দরকার। যেভাবে ভারত নিজের বিদেশনীতি (Foreign Policy) নিয়ন্ত্রণ করছে, পাকিস্তানেরও সেরকম পদক্ষেপ করা দরকার।”প্রসঙ্গত, আন্তর্জাতিক মঞ্চে ভারত বারবার নিরপেক্ষ অবস্থান বজায় রেখেছে। রাশিয়া থেকে তেল আমদানি প্রসঙ্গে ভারত জানিয়েছে, দেশের স্বার্থকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। ভারতের পক্ষে যা লাভজনক, সেই ভাবেই বিদেশনীতি প্রণয়ন করা হবে।

[আরও পড়ুন: কোরানকে নিষিদ্ধ করার দাবি, নূপুর শর্মাকে সমর্থন, কে এই নেদারল্যান্ডসের নেতা?]

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ আগেই রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের (Vladimir Putin) সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন তিনি।সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছিল মস্কো বিমানবন্দরে রুশ প্রতিনিধিদের সঙ্গে হাঁটছেন পাক প্রধানমন্ত্রী। সেই সময়ই তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছিল, “উফ! কী সময়ে এসেছি! এত উত্তেজনা।” তাঁকে হাসিখুশি ফুরফুরে মেজাজেই দেখা গিয়েছিল। দুই দশক পরে প্রথম পাক প্রধানমন্ত্রী হিসাবে রাশিয়া সফরে গিয়েছিলেন ইমরান। কিন্তু সদ্য প্রকাশিত সাক্ষাতকারে ইমরান বলেছেন, “আমি জানতাম না কী হতে চলেছে। মাত্র এক রাতের জন্য আমি রাশিয়াতে গিয়েছিলাম।”

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

তাঁকে জিজ্ঞাসা করা হয়, যুদ্ধের (Russia-Ukraine War) কথা শুনেও তিনি কেন রাশিয়ার সঙ্গে বৈঠক বাতিল করলেন না? উত্তরে ইমরান বলেন, “আমার কাছে মাত্র এক ঘণ্টা সময় ছিল। তার মধ্যেই সিদ্ধান্ত নিতে হত। আমি বুঝতে পারিনি পাকিস্তান যদি রাশিয়ার আক্রমণের বিরোধিতা করে তাহলে লাভ হবে কিনা।” সেই সঙ্গে যোগ করেছেন, “পুতিন যদি বুঝতে পারতেন কী হতে চলেছে, তাহলে যুদ্ধ ঘোষণা করতেন না।” তাহলে কি ইমরান রুশ আগ্রাসনের নিন্দা করছেন? উত্তরে তিনি বলেছেন, “সব ধরণের সামরিক আক্রমণের বিরোধিতা করি আমি। সেটা ইরাক, আফগানিস্তান বা ইউক্রেন-যেখানেই হোক না কেন।”

[আরও পড়ুন: বিপর্যস্ত শ্রীলঙ্কা, দ্বীপরাষ্ট্রটির মদতে ভারতকে পাশে চাইছে চিন]

Advertisement
Next