হিজাব-বিরোধী আন্দোলন থামাতে ১২০০ পড়ুয়াকে বিষ খাওয়াল ইরান! চাঞ্চল্যকর দাবি ছাত্রদের

01:25 PM Dec 07, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হিজাব বিরোধী আন্দোলনে যোগ দেওয়ার অপরাধে প্রায় ১২০০ জন পড়ুয়াকে বিষ খাইয়েছে প্রশাসন! সাম্প্রতিক একটি রিপোর্টে উঠে এসেছে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য। জানা গিয়েছে, একযোগে বিশাল আন্দোলনের পরিকল্পনা করেছিল ইরানের (Iran) বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। পূর্ব নির্ধারিত সেই আন্দোলনের কথা জানতে পেরেই বিশাল সংখ্যক পড়ুয়াকে বিষ খাইয়ে দেওয়া হয়। আক্রান্ত পড়ুয়ারা সকলেই গায়ে ব্যথা ও মাথা ঘোরার সমস্যায় ভুগছেন। পেটের সমস্যাও রয়েছে তাঁদের। অসুস্থ পড়ুয়ারা যেন চিকিৎসা না পান, সেই জন্য স্থানীয় হাসপাতালগুলিতেও চিকিৎসা পরিষেবা কার্যত বন্ধ করে রাখা হয়েছে।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

কিছুদিন আগেই জানা গিয়েছিল, আন্দোলনের (Anti Hijab Protest) চাপে পড়ে নীতি পুলিশ বাতিল করে দিয়েছে ইরানের প্রশাসন। কিন্তু সেদেশের পড়ুয়াদের দাবি, এমন কোনও পদক্ষেপ করেনি কট্টরপন্থী শাসকরা। বিশ্বের দরবারে মিথ্যা কথা প্রচার করার প্রতিবাদে শাসকের বিরুদ্ধে টানা তিনদিন ধরে ধর্মঘটের পরিকল্পনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। সেই কথা জানতে পেরেই আন্দোলন দমিয়ে রাখতে প্রাণপন চেষ্টা শুরু করে প্রশাসন। খাবারের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে দেওয়া হয়। তাতেই অসুস্থ হয়ে পড়েন ১২০০ জন পড়ুয়া।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ, রাজা চার্লসের দিকে ডিম ছুঁড়লেন ব্রিটিশ যুবক]

বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের তরফে এই দাবি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হয়েছে। পড়ুয়ারা জানিয়েছেন, যেহেতু প্রতিবাদ কর্মসূচির কথা আগে থেকে প্রশাসনের জানা ছিল, সেই জন্য হাসপাতালে পরিষেবা অকেজো করে রাখা হয়েছে। চিকিৎসা পাচ্ছেন না অসুস্থ পড়ুয়ারা। সাবধান থাকতে আপাতত বাইরের খাবার এড়িয়ে চলার চেষ্টা করছেন পড়ুয়ারা। তবে স্থানীয় আধিকারিকদের মতে, কোনও কারণে পানীয় জলে বিষক্রিয়া হয়েছিল। সেই জল খেয়েই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন পড়ুয়ারা।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

প্রসঙ্গত, হিজাব বিরোধী আন্দোলন থামিয়ে দিতে একাধিক কড়া পদক্ষেপ করেছে ইরানের প্রশাসন। বিদ্রোহ দমনে অমানুষিক অত্যাচার চালাচ্ছে সরকার। ইতিমধ্যেই প্রাণ হারিয়েছেন কয়েকশো মানুষ। এই পরিস্থিতিতে ৫ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিল ইরানের আদালত। তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, এক আধা সেনাকর্মীকে খুনের। এই মামলায় মোট ১৩ জন পুরুষ ও তিন নাবালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছিল। সকলকেই সাজা দেওয়া হয়েছে। এবার পড়ুয়াদের বিষ খাইয়ে হত্যার ষড়যন্ত্র করল ইরানের প্রশাসন। 

[আরও পড়ুন: দিল্লি পুরসভাতেও ঝাড়ু-ঝড়ে কাত বিজেপি! দেড় দশক পর ক্ষমতা হারানোর মুখে বিজেপি]

Advertisement
Next