আশি ছুঁইছুঁই বাইডেন, প্রেসিডেন্ট পদে আর কতদিন? প্রশ্ন আমেরিকায়

10:38 AM Jul 12, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নির্বাচনে জয়ের সঙ্গে সঙ্গেই রেকর্ড গড়ে ফেলেছিলেন জো বাইডেন (Joe Biden)। আমেরিকার ইতিহাসে সবচেয়ে বয়স্ক প্রেসিডেন্ট হিসাবে শপথ নিয়েছিলেন তিনি। তবে এবার মার্কিন রাজনৈতিক মহলেই প্রশ্ন উঠছে বাইডেনকে নিয়ে। আর কতদিন তাঁকে দেশের সর্বোচ্চ প্রশাসনিক পদে রাখা যাবে? আগামী নভেম্বর মাসেই আশি বছর পূর্ণ হবে বাইডেনের। বয়সের কারণে শরীর দুর্বল হয়ে পড়ছে তাঁর। তা সত্বেও ২০২৪ সালের আগামী নির্বাচনে লড়তে চান তিনি। কিন্তু তাঁর দল ডেমোক্র্যাট কি আদৌ সেই প্রস্তাবে রাজি হবে? টানাপোড়েন বাড়ছে শাসক দলের মধ্যেই।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

আগামিকালই মধ্য প্রাচ্য সফরে যাবেন বাইডেন (Biden Middle East Visit)। তিনদিনের এই সফরের মধ্যে নানা কূটনৈতিক বৈঠকে অংশ নেবেন তিনি। বিশেষজ্ঞদের মতে, কূটনৈতিকভাবে আমেরিকার অবস্থান শক্ত করাই বাইডেনের সফরের মূল উদ্দেশ্য। কিন্তু সেই সফরের ক্লান্তি পড়বে বাইডেনের স্বাস্থ্যেও। ইতিমধ্যেই আমেরিকার বিরোধী দল রিপাবলিক দাবি করেছে, স্মৃতিভ্রংশের সমস্যায় ভুগছেন বাইডেন। তবে সেই দাবি উড়িয়ে দিয়ে ডেমোক্র্যাটদের তরফে জানানো হয়েছে, সম্পূর্ণ সুস্থ আছেন প্রেসিডেন্ট।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে মানতে হবে ধর্মের ভারসাম্য, সওয়াল যোগীর]

কিন্তু আগামী নির্বাচনে বাইডেনের লড়ার পক্ষে সওয়াল করছে না ডেমোক্র্যাটরা (Democrat)। ২০২৪ সালের সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হিসাবে একটি সমীক্ষা করা হয়েছিল ডেমোক্র্যাট ভোটারদের মধ্যে। মার্কিন সংবাদপত্রের সেই সমীক্ষায় জানা গিয়েছে, অন্তত ৬৪ শতাংশ মানুষ বাইডেনকে পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসাবে দেখতে চান না। তাঁদের অধিকাংশের মতে, বাইডেনের বয়সের কারণেই তাঁকে আর প্রেসিডেন্ট পদে বসানো যাবে না। প্রসঙ্গত, আগামী নির্বাচনের সময় বাইডেনের বয়স হবে ৮২। কিন্তু তাঁর যোগ্য বিকল্প নেতা কে? কঠিন প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে হবে ডেমোক্র্যাটদের।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

শারীরিক সমস্যা ছাড়াও নানা প্রতিকূলতার মধ্যে রয়েছেন বাইডেন। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের ফলে ভলোদিমির জেলেনস্কির দেশকে শেষ পর্যন্ত সাহায্য করার ঘোষণা করেছে আমেরিকা। তার ফলে চাপ পড়ছে দেশের অর্থনীতিতে। এছাড়াও ক্রমাগত মূল্যবৃদ্ধির কারণেও সাধারণ মানুষের রোষের মুখে রয়েছেন বাইডেন। তার সঙ্গে যোগ হয়েছে সাম্প্রতিক কালে লাগাতার বন্দুকবাজের হানা। ফলে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণ বিল প্রণয়ন করতে বাধ্য হয়েছেন। গর্ভপাত নিষিদ্ধ করে মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের রায় নিয়েও সমস্যায় পড়েছেন তিনি। সবমিলিয়ে জেরবার অবস্থা কাটিয়ে উঠতে পারবেন কি ‘বৃদ্ধ’ বাইডেন?

[আরও পড়ুন: Coronavirus: দেশে একদিনে করোনা আক্রান্ত ১৩ হাজার ৬১৫ জন, স্বস্তি পজিটিভিটি রেটে]

Advertisement
Next