পাকিস্তানে বন্যাত্রাণে গিয়ে ভেঙে পড়ল সামরিক কপ্টার, মৃত্যু ছয় সেনা অফিসারের

06:16 PM Aug 02, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বন্যাবিধ্বস্ত পাকিস্তানে (Pakistan) উদ্ধার কাজ চালাতে গিয়ে ভেঙে পড়ল সেনার বিমান। মৃত্যু হয়েছে ছয় সামরিক শীর্ষকর্তার। তার মধ্যে অন্যতম লেফটেন্যান্ট জেনারেল সরফরাজ আলি। প্রসঙ্গত, পাক সেনার সর্বোচ্চ মর্যাদায় তৃতীয় স্থানে থাকেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল (Pakistan Plane Crash)। তবে এই বিমান ভেঙে পড়ার পিছনে বালোচ বিদ্রোহীদের হাত রয়েছে বলে অনুমান বিশেষজ্ঞদের। ভয়াবহ ঘটনায় শোক প্রকাশ করে টুইট করেছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন এবং বর্তমান প্রধানমন্ত্রী।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

প্রবল বন্যায় বিপর্যস্ত বালোচিস্তানে ইতিমধ্যেই ৪৭৮ জন মারা গিয়েছে। পাক সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে, উদ্ধারকাজ খতিয়ে দেখার জন্য সোমবার ছয় সেনা কর্তাকে নিয়ে বালোচিস্তানে গিয়েছিল একটি হেলিকপ্টার। বিকেলের মধ্যেই ফিরে আসার কথা ছিল তাঁদের। কিন্তু মাঝ আকাশেই এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের সঙ্গে কপ্টারটির (Pakistan Army) যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। তখনই অনুমান করা গিয়েছিল, হয়তো ভেঙে পড়েছে কপ্টারটি।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: ঘটেনি কোনও বিস্ফোরণ, গোপন ক্ষেপণাস্ত্রেই খতম জওয়াহিরি! কীভাবে হল লক্ষ্যভেদ?]

প্রাকৃতিক প্রতিকূলতার কারণে সেনাদের উদ্ধার করার কাজ শুরু করতে অনেকটাই দেরি হয়ে যায়। মঙ্গলবার বিকেলে পাক সেনার তরফে জানানো হয়, বালোচিস্তানের পার্বত্য অঞ্চলে ভেঙে পড়েছে সেনার হেলিকপ্টার। সেই সঙ্গে মৃত্যু হয়েছে হেলিকপ্টারে থাকা সকল আরোহীর। ঘটনাস্থল থেকে হেলিকপ্টারের ভাঙা অংশ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, খারাপ আবহাওয়ার ফলেই বিকল হয়ে গিয়েছিল হেলিকপ্টার।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

তবে বিশেষজ্ঞদের অনেকেই অনুমান করছেন, বালোচ বিদ্রোহীরা গুলি করে ওই হেলিকপ্টারটি ধ্বংস করেছে। জানা গিয়েছে, কোয়েটা কর্পসের প্রধান হিসাবে বালোচ বিদ্রোহীদের শায়েস্তা করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছিলেন সরফরাজ। সেই রাগ থেকেই তাঁকে হত্যা করা হয়েছে, এমনটা আন্দাজ করছেন অনেকেই। তবে এখনও পর্যন্ত এই ঘটনা নিয়ে কোনও বক্তব্য প্রকাশ করা হয়নি বালোচ বিদ্রোহীদের তরফে।

এহেন ঘটনার পরে টুইট করে শোক প্রকাশ করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ। তিনি লিখেছেন, “মানুষের পাশে দাঁড়াতে গিয়েছিলেন সেনা কর্তারা। এই ঘটনায় শোকস্তব্ধ গোটা পাকিস্তান। দেশের মানুষ তাঁদের ঋণ শোধ করতে পারবে না। শোকার্ত পরিবারগুলির প্রতি আমার সমবেদনা।” সমবেদনা জানিয়ে টুইট করেছেন ইমরান খানও।

[আরও পড়ুন: হামলা চালাতে পারে চিন! যুদ্ধের মহড়া শুরু করল তাইওয়ান

Advertisement
Next