ঋষির থেকে অনেক এগিয়ে ট্রাস, ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনা ৯০ শতাংশ! দাবি রিপোর্টের

02:47 PM Jul 31, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নির্বাচনে তিনি হেরে যাবেন, সম্প্রতি নিজেই এমনটাই জানিয়েছিলেন ব্রিটেনের (UK) প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী ঋষি সুনাক (Rishi Sunak)। প্রতিদ্বন্দ্বী লিজ ট্রাসের কাছে তিনি যে ক্রমেই ‘আন্ডারডগ’ হয়ে উঠছেন, সেকথা ফের পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে এক রিপোর্ট থেকে। যে রিপোর্টের দাবি, ট্রাসের ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনা ৯০ শতাংশ।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘ব্লুমবার্গ’কে এক বেটিং সংস্থা ‘এসমার্কেটসে’র তরফে জানানো হয়েছে, যা পরিস্থিতি তাতে ঋষির ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনা ১০ শতাংশ। তাদের হিসেব বলছে, যখন প্রথন লড়াইটা দ্বিমুখী লড়াই হয়ে দাঁড়িয়েছিল তখন ট্রাস এগিয়ে ছিলেন ৬০-৪০ হিসেবে। কিন্তু পরে যত সময় এগিয়েছে ততই তিনি দৌড়ে এগিয়ে গিয়েছেন।
সংস্থার প্রধান ম্যাথিউ শ্যাডিক জানিয়েছেন, ”অনেকেই ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন ঋষি সুনক অনেক যোগ্য প্রার্থী। কিন্তু ট্রাসের ডিবেট পারফরম্যান্স প্রত্যাশাকে ছাপিয়ে গিয়েছে।”

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: ঝাড়খণ্ডের কং বিধায়কদের গাড়িতে উদ্ধার ৪৯ লক্ষ, সরকার ফেলতে টাকা দিয়েছে BJP, দাবি হাই কম্যান্ডের]

ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী (Britain Prime Minister) পদে কে বসবেন? সেই নিয়ে ভোটাভুটি, লড়াই চলছে বেশ কিছুদিন ধরে। অনেক প্রার্থীর মধ্যে ভোটাভুটি করে শেষ পর্যন্ত লড়াইয়ে টিকে রয়েছেন ঋষি সুনাক এবং লিজ ট্রাস। আগামী দিনে কনজারভেটিভ পার্টির সদস্যদের ভোটেই ঠিক হবে, ১০ ডাউনিং স্ট্রিটের মসনদে কে বসবেন।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

প্রধানমন্ত্রিত্বের নির্বাচন শুরু হওয়ার পরে প্রত্যেক ধাপেই এগিয়ে ছিলেন ঋষি। সাংসদদের মধ্যে ভোটাভুটির প্রত্যেক রাউন্ডেই সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু যত সময় এগোচ্ছে, ততই পিছিয়ে পড়ছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ঋষি।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে ব্রেক্সিট বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতিতে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে জয়ী হন বরিস জনসন। কিন্তু গত দু’বছর ধরেই তিনি একের পর এক কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে দলের মধ্যে অনেকের আস্থা হারিয়েছেন। অবশেষে দলীয় বিদ্রোহে গদি ছাড়তে হয় তাঁকে। তারপর থেকেই জল্পনা শুরু হয়েছে, ব্রিটেনের মসনদে এরপর কে বসবেন তা নিয়ে।

[আরও পড়ুন: এবার নিশানায় সঞ্জয় রাউত, শিব সেনা সাংসদের বাড়িতে সিআরপিএফ নিয়ে হানা ইডির]

Advertisement
Next