Advertisement

এ কোন তালিবান! চিড়িয়াখানায় হরিণের শিং ধরে টানাটানি জেহাদিদের, হেসে খুন নেটিজেনরা

09:14 PM Sep 19, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তালিবান (Taliban)। শব্দটা শুনলেই মাথার মধ্যে ভিড় করে আসে নির্মম, রুক্ষ চেহারার সব মুখ। ‘মানবিকতা’ শব্দটাই যেন এক মস্ত পরিহাস তাদের কাছে। বন্দুক হাতে তালিবানের টহলদারির সেই ছবির পাশাপাশি এবার দেখা গেল এক অন্য তালিবান। কথায় আছে, যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে। সেই প্রবাদকে সত্যি করে এবার তালিবানকে দেখা গেল চিড়িয়াখানায় গিয়ে আনন্দে মেতে উঠতে। সঙ্গে বন্দুক নয়, হাতে আইসক্রিম হাতে ঘুরে বেড়াল জেহাদিরা।

Advertisement

৪০ বছরের আবদুল কাদির তালিবানের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রকের সদস্য। দলের সঙ্গে সেও এসেছিল চিড়িয়াখানায়। এক সংবাদমাধ্যমকে খোশমেজাজে থাকা কাদির জানিয়েছে, ”আমার জন্তু জানোয়ার দেখতে দারুণ লাগে। বিশেষ করে আমাদের দেশে যাদের পাওয়া যায়। সবচেয়ে প্রিয় সিংহ।”

শিশুদের ভিড়ে তালিবান।

[আরও পড়ুন: তালিবানের অন্দরে ক্ষমতা দখলের লড়াই, বরাদরকে ঘুসি হাক্কানির, প্রাসাদে গুলিবৃষ্টি]

তালিবানদের চিড়িয়াখানায় ঘুরে বেড়ানোর বিভিন্ন ছবি ভাইরাল হয়েছে। তার মধ্যে একটি ছবিতে এক তালিবানকে দেখা যাচ্ছে হরিণের শিং ধরে নাড়তে। তার মুখে শিশুসুলভ বেমানান হাসি দেখে হাসিতে গড়িয়ে পড়েছে নেটিজেনরা। আবার শিশুদের মধ্যে তালিব যোদ্ধাদের মন দিয়ে অ্যাকোরিয়ামের রঙিন মাছ দেখতে দেখে অবধারিত ভাবেই মনে পড়ে যাবে অস্কার ওয়াইল্ডের ‘সেলফিস জায়েন্ট’কে। যে একদিন নিজের রুক্ষতা ভুলে নেমে এসেছিল শিশুদের মাঝে।

কেবল চিড়িয়াখানায় যাওয়াই নয়। শুক্রবারের নমাজের পর আইসক্রিম হাতে পিকনিক স্পটেও ঘুরে বেড়া দেখা গিয়েছে তালিব যোদ্ধাদের। তবে সবচেয়ে বেশি ভিড় চিড়িয়াখানাতেই। দল বেঁধে সিংহ, চিতা, উট, অস্ট্রিচ, ম্যাকাও দেখে বেড়াচ্ছে জেহাদিরা। কেবল ঘুরে বেড়ানোই নয়, আম নেটিজেনদের মতোই রীতিমতো সেলফি তুলতেও দেখা গিয়েছে তাদের। মাথায় আফগান পাগড়ি ও গায়ে শাল।

[আরও পড়ুন: তালিবান আছে তালিবানেই! মেয়েদের বাদ দিয়েই খুলছে আফগানিস্তানের স্কুল]

কিন্তু হাতে বন্দুক নেই কেন? তালিব যোদ্ধাদের পরিষ্কার জবাব, ”বাচ্চা ও মহিলারা যাতে ভয় না পায় সেই কারণেই বন্দুক সঙ্গে রাখিনি।” তালিবানের এমন কথা সত্য়িই অবাক করার মতো। ক্ষমতায় প্রত্যাবর্তনের পর থেকেই আফগানিস্তানে ফের ভয়ের রাজত্ব কায়েম করেছে জেহাদিরা। তাদের ভয়ে পথেঘাটে বেরতে ভয় পাচ্ছে মহিলারা। এমনকী, পুরুষরাও কার্যত প্রাণ হাতে করেই রাস্তায় বেরচ্ছেন। সত্য়িই এই পরিস্থিতিতে চিড়িয়াখানার খোশমেজাজি জঙ্গির দল তাই বিস্ময়ের উদ্রেক করবে, সেটাই যে স্বাভাবিক।

Advertisement
Next