তুরস্কের ভূমিকম্প LIVE UPDATE: দু’দিনে পঞ্চমবার কাঁপল তুরস্ক, তিন মাসের জন্য জারি জরুরি অবস্থা

07:27 PM Feb 07, 2023 |
Advertisement

রবিবার মধ্যরাতে ভূমিকম্প তুরস্ক  (Turkey) ও সিরিয়ায় (Syria)। সেই বিপর্যয়ের মাঝেই সোমবার দিনভর ফের দু’বার কম্পন (Earthquake)। সেই কম্পন পৌঁছেছে সুদূর গ্রিনল্যান্ডেও। ধারাবাহিক ভূমিকম্পের জেরে একেবারে বিধ্বস্ত দুই দেশ – তুরস্ক ও সিরিয়া।  তবে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত তুরস্ক। লাফিয়ে বেড়ে চলেছে মৃতের সংখ্যা। শহরগুলি তছনছ। কে কোথায় ছিল, সবাই ছিটকে বেরিয়ে গিয়েছে। চূড়ান্ত বিপর্যয়ের মুখে ছবির মতো দেশটি। বিপদের খবর পেয়েই অবশ্য ভারত  (India)সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। ত্রাণ ও উদ্ধারকারী দল পাঠানো হয়েছে। কম্পন বিধ্বস্ত তুরস্কের সমস্ত আপডেট: 

Advertisement

সন্ধে ৭:  ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় আগামী ৩ মাসের জন্য জারি হল জরুরি অবস্থা। মৃতের সংখ্যা পেরোল ৫ হাজার। 

দুপুর ৪: সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিল বাংলাদেশ। তুরস্কের উদ্দেশে ১০ সদস্যের প্রতিনিধিদল পাঠাচ্ছে শেখ হাসিনার দেশ। 

Advertising
Advertising

দুপুর ৩.১৫: সিরিয়া ও তুরস্কের জন্য ত্রাণ পাঠাল রাষ্ট্রসংঘ। চিকিৎসকের দল পাঠাচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। 

দুপুর ৩: সিরিয়ার জন্য আলাদা করে ওষুধ পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিল ভারত। তুরস্কের জন্য ইতিমধ্যেই বিপুল ত্রাণ পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলের মধ্যেই দামাস্কাসে পৌঁছবে ভারতের সি ১৩০ বিমান। 

দুপুর ২.৪৫: ভারতের উদ্ধারকারী দলের বিমানকে পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহার করার অনুমতি দেওয়া হল না। ঘুরপথে তুরস্কে পৌঁছল ভারতের বিমান। মানবতার কথা বিচার করেও পাক আকাশসীমা ব্যবহার করার অনুমতি মিলল না ভারতের।  

দুপুর ২.৩০: দু’দিনে পঞ্চমবার ভূমিকম্প তুরস্কে। মঙ্গলবার ৫.৪ রিখটার স্কেলে কেঁপে ওঠে তুরস্কের পূর্বদিকের শহরগুলি।

দুপুর ১.২০: আরও বেশি উদ্ধারকর্মী, ত্রাণসাহায্য নিয়ে ভারতীয় বায়ুসেনার আরও দুটি বিমান রওনা দিল তুরস্কের দিকে।

দুপুর ১: তুরস্কের সঙ্গে ২০০২ সালের ভুজ ভূমিকম্পের তুলনা। দলে সংসদীয় বৈঠকে বিপর্যয়ের কথা বলতে গিয়ে আবেগপ্রবণ নরেন্দ্র মোদি।  

দুুপুর ১২.৩৬: সিরিয়ায় লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। তা প্রায় ৫০০০ ছুঁইছুঁই। আলেপ্পো, হামা, লাতাকিয়ার মতো শহরে মৃত্যু সবচেয়ে বেশি। 

দুপুর ১২.৩০: ভারতকে দোস্ত বলে ধন্যবাদ জানাল তুরস্ক। বিপদের সময়ে যারা পাশে থাকে, তারাই প্রকৃত বন্ধু, বললেন ভারতে নিযুক্ত তুরস্কের রাষ্ট্রদূত ফিরাত সুনেল। 

দুপুর ১২.১৪: ওষুধপত্র, ত্রাণসামগ্রী নিয়ে ভারতের প্রথম C17 বিমান নামল তুরস্কের আদানা বিমানবন্দরে।

বেলা ১১.৫৮: তুরস্কের পাশে দাঁড়িয়ে একযোগে অর্থসাহায্য ঘোষণা অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ডের। ১১ মিলিয়ন ডলার পাঠাবে দুই দেশ।

বেলা ১১.৪৪: জোরকদমে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে তুরস্কের স্থানীয়রা।  এখনও পর্যন্ত ৭৮০০ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। সিরিয়ায় এখনও আটকে শতাধিক পরিবার। 

বেলা ১১.৩৫: আগ্রা থেকে তুরস্কের উদ্দেশে আরও একটি উদ্ধারকারী দল পাঠানো হল। সেনা হাসপাতাল থেকে ভেন্টিলেটর, অক্সিজেন সিলিন্ডারের মতো গুরুত্বপূর্ণ মেডিক্যাল সরঞ্জাম নিয়ে রওনা হয়েছে দলটি। রয়েছেন অস্থিবিশেষজ্ঞ, সার্জনরাও।  

বেলা ১১.১৪: বিপদগ্রস্ত তুরস্কের পাশে আন্তর্জাতিক মহল।  উদ্ধারকারী দল পাঠাচ্ছে জার্মানি, পাকিস্তানও (Pakistan)।

সকাল ১০.৪২: তুরস্কের ভয়াবহ ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা ছাড়াতে পারে ৪০ হাজার! আশঙ্কা প্রকাশ করল বিশ্ব  স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)।

সকাল ১০.১৪: ফের কম্পন তুরস্কে। এবার রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ৫.৫। ইস্তাম্বুল থেকে ১৩ হাজার উদ্ধারকর্মী যাচ্ছেন ঘটনাস্থলে। উদ্ধারকাজে দল পাঠাচ্ছে ওয়াশিংটন। 

সকাল ১০: প্রবল বৃষ্টি, ঠান্ডা আবহাওয়ার মধ্যে খালি হাতেই উদ্ধারকাজ চালাচ্ছেন তুরস্ক, সিরিয়ার মানুষজন। ধ্বংসস্তূপে চলছে প্রাণের সন্ধান। 

সকাল ৯.৪১: তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগানকে ফোন করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন (Joe Biden)। বিপদের সময় সবরকমভাবে পাশে থাকার আশ্বাস দিলেন তিনি। 

সকাল ৯.২০: মরার উপর খাঁড়ার ঘা। কম্পন বিধ্বস্ত তুরস্কে উদ্ধারকাজ চলাকালীন প্রবল বৃষ্টি। তাতে ব্যাহত হয় উদ্ধারকাজ। সোমবার বরফপাতের জেরে কাজে বাধা পায় উদ্ধারকারী দল। 

সকাল ৯.১০: তুরস্কে ২৪ ঘণ্টায় তিনবার ভূমিকম্পের জেরে মৃতের সংখ্যা বাড়ল আরও। এই মুহূর্তে তা ৪৩০০। সিরিয়ায় এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে প্রায় দেড় হাজার মানুষের। নিখোঁজ বহু। ধ্বংসস্তূপ হাতড়ে প্রিয়জনদের খুঁজতে মরিয়া সকলে।    

সকাল ৯: কম্পন বিধ্বস্ত তুরস্কে উড়ে গেল ভারতের (India) প্রথম উদ্ধারকারী দল। রয়েছে এডিআরএফ টিম, বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কুুকুর, প্রচুর ওষুধপত্র, ড্রিল মেশিন ও প্রয়োজনীয় সামগ্রী।

Advertisement
Next