Advertisement

পিছিয়ে গেল আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ইমপিচমেন্ট প্রক্রিয়া

04:02 PM Jan 24, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের (Donald Trump) বিরুদ্ধে ইমপিচমেন্ট মামলা দু’সপ্তাহ পিছিয়ে দেওয়া হল। মার্কিন সেনেট যাতে নতুন প্রেসিডেন্ট জো বিডেনের আইনি বিষয়সূচি এবং ক্যাবিনেট সদস্যদের উপর মনোনিবেশ করতে পারে, তার জন্য সেনেট এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: নেপালে তীব্র হচ্ছে ওলি বিরোধী বিক্ষোভ, নেতৃত্বে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী প্রচণ্ড]

সেনেটের মেজরিটি লিডার এবং ডেমোক্র্যাট চাক শুমার জানিয়ে দিয়েছেন, আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে মামলা চালু হবে। সেনেটের শীর্ষ রিপাবলিকান মিচ ম্যাকনেল এই সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছেন। আগামী সোমবার ইমপিচমেন্টের অভিযোগ সরকারিভাবে সেনেটের হাতে তুলে দেবে কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ। সাধারণভাবে এর একদিন পরে মামলা শুরু হত। তবে মামলা পিছিয়ে দিয়ে শুমার বলেছেন, এই সময়টায় তাঁরা দ্রুত বাইডেনের নির্বাচিত ক্যাবিনেট সদস্যদের স্বীকৃতি দেওয়া-সহ অন্যান্য কাজ করে ফেলতে পারবেন। নিম্নকক্ষ এবং ট্রাম্পের আইনজীবীরাও মামলার প্রস্তুতির জন্য বাড়তি সময় পাবেন।

উল্লেখ্য, গত ৩ নভেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর থেকে লাগাতার ডেমোক্র্যাট শিবিরকে আক্রমণ করে গিয়েছেন রিপাবলিকান ট্রাম্প। জালিয়াতি করে তাঁকে হারানো হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন। মামলা করেছেন। আর তাতে কোনও লাভ না হওয়ায় অশান্তি সৃষ্টির জন্য নিজের সমর্থকদের উসকানিও দিয়েছেন বলে বিরোধীদের দাবি। তবে ক্যাপিটল হিলের ঘটনার পর দ্বিতীয়বার ইমপিচমেন্টের মুখোমুখি হওয়ার কিছুটা থমকে গিয়েছিলেন তিনি। তাই পেশীশক্তি নয়, রাজনীতিকেই হাতিয়ার করতে চাইছেন তিনি। মার্কিন রাজনীতির গতিপথ সাধারণত রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটিক এই দুই দলই নির্ণয় করে। অতীতে তৃতীয় পার্টি থাকলেও তা রাজনীতির ময়দানে খুব একটা প্রভাব ফেলতে সক্ষম হয়নি। কিন্তু নিজের উগ্র ‘শ্বেতাঙ্গ প্রথম’ রাজনীতির জোরে ট্রাম্প দল গড়লে মার্কিন রাজনীতিতে এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা হবে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। কারণ, নির্বাচন হারলেও ট্রামপন্থীদের সংখ্যা খুব একটা কম নয়।

[আরও পড়ুন: ব্রিটেনের নয়া করোনা স্ট্রেন সম্ভবত অনেক বেশি প্রাণঘাতী, আশঙ্কা বরিস জনসনের]

Advertisement
Next