পাঁচ দশক পুরনো আইন বাতিল, আমেরিকার গর্ভপাত আর সাংবিধানিক অধিকার নয়

09:20 AM Jun 25, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রায় পাঁচ দশক পুরনো গর্ভপাত সংক্রান্ত আইন বাতিল করল সুপ্রিম কোর্ট। এবার আমেরিকায় গর্ভপাত আর সাংবিধানিক অধিকার নয়। ফলে মার্কিন মুলুকে প্রায় লক্ষ লক্ষ মহিলা ‘রাইট টু অ্যাবর্ট’ বা গর্ভপাতের আইনি অধিকার থেকে বঞ্চিত হতে চলেছেন। এই বিষয়ে আজই জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

Advertisement

[আরও পড়ুন: স্ত্রীর গলায় ধারাল অস্ত্রের কোপ, বাথটবে শুইয়ে পছন্দের গান শুনিয়ে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিল স্বামী]

১৯৭৩ সালের বহুল চর্চিত রো বনাম ওয়েড মামলার (Roe v. Wade) রায় কার্যকরী হওয়ায় আমেরিকায় গর্ভপাত সংক্রান্ত অধিকারের আইন লাগু ছিল। আজ শুক্রবার সেই আইন খারিজ করে মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট এবার গর্ভপাত নিষিদ্ধ করার পক্ষে রায় দিয়েছে। দেশটির শীর্ষ আদালত সাফ বলেছে, “আমেরিকার মহিলাদের গর্ভপাতের অধিকার সংবিধান কখনওই দেয়নি।” এই রায়ের ফলে এবার সেখানের বিভিন্ন প্রদেশ বা রাজ্যগুলি নিজের মতো করে এই গর্ভপাতের অধিকার নিষিদ্ধ করতে পারবে। ইতিমধ্যেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ১৩টি প্রদেশ গর্ভপাতকে আইনত নিষিদ্ধ করেছে। মনে করা হচ্ছে, আরও বেশ কয়েকটি স্টেট আমেরিকায় সেপথেই হাঁটবে।

আমেরিকার রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, এই রায়ের পর এক গুচ্ছ আইন প্রণয়ন শুরু করবে আমেরিকার ৫০ টিরও বেশি স্টেট। গর্ভপাতকে নিষিদ্ধ করা হবে সেই সব আইনে। গর্ভপাতকে অপরাধ হিসেবেও দেখানোর আইনও তৈরি হবে। সে ক্ষেত্রে গর্ভপাত করানোর জন্য আমেরিকার মহিলাদের অন্য দেশে যেতে হতে পারে। যেখানে গর্ভপাত আইনত বৈধ।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: কোষাগার ‘গড়ের মাঠ’, আয় বাড়াতে শিল্পপতিদের উপর ‘সুপার ট্যাক্স’ চাপাল পাকিস্তান]

উল্লেখ্য, গর্ভপাতের অধিকার নিয়ে আমেরিকার দুই দল–রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটদের মধ্যে বিবাদ রয়েছে। রিপাবলিকানরা আইনত গর্ভপাতের বিরুদ্ধে। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে, মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের সংখ্যাগরিষ্ঠ রক্ষণশীল বিচারপতিদের মধ্যে তিন জন আবার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের (Donald Trump) মনোনীত, প্রথম মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে যিনি নিজে গর্ভপাতের বিরুদ্ধে আন্দোলনে অংশগ্রহণ করার পাশাপাশি, তাতে ভাষণও দেন। জো বাইডেন (Joe Biden) নেতৃত্বাধীন ডেমোক্র্যাটরা যদিও লাগাতার তার বিরোধিতা করে আসছেন।

Advertisement
Next