Advertisement

মিলনের সময় যৌনাঙ্গে ব্যথা অনুভব করেন? তাহলে অবশ্যই করুন এই ব্যায়াম

04:44 PM Apr 29, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যৌনতা। এই শব্দ নিয়ে আগ্রহ প্রচুর। নারী-পুরুষ নির্বিশেষে সকলেই শরীর তত্ত্বের সুখ নিয়ে সচেতন। তবে ভারতবর্ষের মতো দেশে যৌনতা নিয়ে ছুৎমার্গও রয়েছে। তাই অনেক কিছুই অজানা থেকে যায়। এমন কিছু সাধারণ উপায় রয়েছে যাতে খুব সহজেই যৌন ক্ষমতা বাড়ানো যায়। কেগেল শরীরচর্চার (Kegel Exercises) নাম শুনেছেন? হ্যাঁ, এর মাধ্যমেই আপনার যৌনক্ষমতা কয়েকগুণ বেড়ে যেতে পারে। আবার এতে যৌনাঙ্গগুলিও ভাল থাকে।

Advertisement

পুরুষ এবং নারী, দু’জনের ক্ষেত্রেই কেগেল এক্সারসাইজ গুরুত্বপূর্ণ। নিয়মিত বিশেষ এই ব্যায়াম করতে পারলে মহিলাদের যৌনাঙ্গের পেশি শক্ত হয়। রতিক্রিয়ার সময় অনেক মহিলাই ব্যথা অনুভব করেন, তাঁরা ভীষণভাবে উপকৃত হবেন কেগেল এক্সারসাইজের মাধ্যমে। জরায়ু এবং মূত্রথলিও ভাল থাকে। অল্প সময়েই কামোত্তেজনা চরম সুখে পরিণত হয়। এই বিষয়টি পুরুষদের ক্ষেত্রেও কার্যকর। কেগেল এক্সারসাইজের ফলে পুরুষদের শীঘ্রপতনের সমস্যার মেটে। আবার যৌনক্ষমতাও বেড়ে যায়। বেশি সময় ধরে তাঁরা শরীরী সুখ অনুভব করতে পারেন।

[আরও পড়ুন: কেন যৌনতা নিয়ে এত গোপনীয়তা ভারতীয়দের? উত্তর দিলেন বিশেষজ্ঞ]

কীভাবে করবেন এই কেগেল এক্সারসাইজ বা শরীরচর্চা?

  • প্রাথমিক পর্যায়ে প্রস্রাব ধরে রাখার ভান করুন। যোনির পেশীগুলিকে ১০ সেকেন্ডের জন্য সঙ্কুচিত করুন। তারপর আসতে আসতে শিথিল করে দিন। মাঝে মাঝে লোকে ভুল পেশির ওপর চাপ দেয়, যার ফলে এই ব্যায়ামের কোন সুফল পাওয়া যায় না।
  • আরেকটি পদ্ধতিতে প্রথমে সটান শুয়ে পড়ুন। এবার পা দু’টি জোড়া করে উপরের দিকে তুলুন আবার নিচের দিকে নামান। এতে তলপেটে থাকা যৌন পেশিগুলি শক্ত হবে। খুব অসুবিধা হলে একটি করে পা তোলা নামা করতে পারেন।
  • এবার শুয়ে থাকা অবস্থাতেই পা দু’টি ভাঁজ করুন। তারপর নিতম্বের অংশটি উপরের দিকে যতটা পারবেন তুলুন। অসুবিধা হলে আবার নামিয়ে নেবেন।
  • প্রথমে যখন কেগেল এক্সারসাইজ বা পেলভিক মাসল ট্রেনিং (Pelvic Muscle Training) শুরু করবেন, দিনে দু’বার ৫ মিনিট করে অনুশীলন করবেন। অভ্যাসের সাথে ব্যায়ামের সময় বেড়ে ১০-১৫ মিনিট হয়ে যেতে পারে।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে কাজ হারিয়ে যৌনকর্মী হয়ে গিয়েছেন স্বামী! জানতে পেরে কী করলেন স্ত্রী?]

Advertisement
Next