Advertisement

পৈশাচিক! বাংলাদেশের হিংসার ঘটনার বিরুদ্ধে সরব রাজ্যের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলি

08:03 PM Oct 18, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: উৎসবের মরশুমে সাম্প্রদায়িক হিংসার ঘটনায় তপ্ত বাংলাদেশ (Bangladesh)। এর বিরুদ্ধে সরব নানা মহল। ইতিমধ্যেই বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে কলকাতার ইসকন (Iskcon)। এবার ধর্মীয় সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানাল নদিয়ার মায়াপুর ইসকন মন্দির কর্তৃপক্ষও। মুর্শিদাবাদে বিজেপির পক্ষ থেকে প্রতিবাদ মিছিলের আয়োজন করা হয়। বিবৃতি জারি করে ধিক্কার জানানো হয়েছে ভারত সেবাশ্রমের পক্ষ থেকে।

Advertisement

সোমবার বিকালে ইসকন মন্দিরের মূল গেট গুরুকুঞ্জের কাছে ইসকনের মহারাজ ও ভক্তরা বুকে কালো ব্যাজ পরে পোস্টার হাতে বাংলাদেশের ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানান। প্রতিবাদে সামিল হয়েছিলেন ইসকনের সঙ্গে নবদ্বীপ গৌড়ীয় সমাজের ভক্তবৃন্দরাও। পোস্টারে লেখা ছিল, “বাংলাদেশের ইসকন মন্দিরের ওপর সহিংস আক্রমণের তীব্র প্রতিবাদ জানাই।” পোস্টার হাতে প্রতিবাদ জানানোর পর সন্ধ্যায় মশাল জ্বালিয়ে প্রতিবাদ জানানো হয়। দুষ্কৃতীদের কঠোর শাস্তির দাবি করা হয়। সেই সঙ্গে মোমবাতি জ্বালিয়ে শান্তির বার্তা দেওয়া হয়।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশ কি ফের ধর্মনিরপেক্ষ হবে? অশান্তির মধ্যেই ইঙ্গিত হাসিনার]

ভারত সেবাশ্রমের (Bharat Sevashram Sangha) পক্ষ থেকে লেখা বিবৃতিতে সংখ্যালঘু হিন্দুদের উপর আক্রমণের এই ঘটনাকে নির্মম ও পৈশাচিক আখ্যা দেওয়া হয়েছে। “আমরা ভারত সেবাশ্রম সঙ্ঘের সন্ন্যাসীবৃন্দ-সহ, সঙ্ঘের পাঁচ শতাধিক হিন্দুমিলন মন্দিরের সভ্যবৃন্দ ও সঙ্ঘের অগনিত ভক্তবৃন্দ তীব্র ভাষায় এই নির্মম ও পৈশাচিক ঘটনার প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এই দুষ্কৃতকারীদের যথোপযুক্ত শাস্তি বিধানের জন্য বাংলাদেশ সরকারের কাছে সনির্বন্ধ অনুরোধ জানাচ্ছি।”


এদিন বাংলাদেশের ঘটনাপ্রবাহের প্রতিবাদে কলকাতা, বনগাঁ ও মুর্শিদাবাদে মিছিল করে বিজেপি। মুর্শিদাবাদের পুরমণ্ডল লালবাগ পাঁচরাহা মোড় থেকে স্থানীয় বিজেপির (BJP) পক্ষ থেকে আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন মুর্শিদাবাদ বিধানসভার বিধায়ক গৌরীশংকর ঘোষ। এছাড়াও জিয়াগঞ্জ-আজিমগঞ্জ পুরসভার অন্তর্গত বিজেপি কর্মীদের দ্বারা প্রতিবাদ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। 

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশে থামছে না সাম্প্রদায়িক হিংসার ঘটনা, পুড়ল হিন্দুদের ৬৫টি ঘর]

Advertisement
Next