Madhyamik 2022: ধন্য মেধা! সেভেনে পড়ার সময়ই দশম শ্রেণির দিদিকে পড়াত মাধ্যমিকে প্রথম হওয়া অর্ণব

02:14 PM Jun 03, 2022 |
Advertisement

টিটুন মল্লিক ও অর্ক দে: ভাল রেজাল্ট হবে, তা জানাই ছিল। কিন্তু তাই বলে মাধ্যমিকে (Madhyamik Exam 2022) প্রথম হবে ভাবতেও পারেনি পূর্ব বর্ধমানের রৌনক মণ্ডল ও বাঁকুড়ার অর্ণব গড়াই। পর্ষদ সভাপতি নাম ঘোষণার পর থেকেই শুভেচ্ছার জোয়ারে ভাসছে দুই পড়ুয়া। তাঁদের পরবর্তী লক্ষ্য ডাক্তার হওয়া।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

পূর্ব বর্ধমানের বাসিন্দা রৌনক মণ্ডল ও বাঁকুড়ার অর্ণব গড়াই, দু’জনেই মাধ্যমিকে প্রথম স্থান দখল করেছে। দুই ছাত্রই ছোট থেকে ডুবে থাকত পড়াশোনায়। জানা গিয়েছে, বাঁকুড়ার অর্ণব গড়াইয়ের বাবা পেশায় প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক। মা গৃহবধূ। বিরাট কোহলির ভক্ত অর্ণবেরও ফোনের প্রতি টান ছিল না। বরং পাঠ্য বই পড়া বাদে বাকি সময় বাইরে গল্পের বই নিয়েই থাকত সে। অর্ণবের বাবা জানিয়েছেন, ছোট থেকেই আর পাঁচজনের থেকে অনেকটা বেশি মেধাবী। অর্ণব যখন সপ্তম শ্রেণির ছাত্র, সেই সময় মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছিলেন তাঁর দিদি। সেই সময় দিদিকে পড়াতো অর্ণব। ফলে সেই ছেলে যে মাধ্যমিকে প্রথম দশে ঠাঁই পাবে, তা বিশ্বাস ছিল অভিভাবকদের। অর্ণবের ইচ্ছে, পরবর্তীতে চিকিৎসক হওয়া। নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশনে পড়াশোনা করার। 

রৌনকের মার্কশিট।

এদিকে পূর্ব বর্ধমানের বাসিন্দা রৌনকের বাবাও পেশায় প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক। মা গৃহবধূ। বাবা জানিয়েছেন, ছোট থেকেই খুব শান্ত ছিল রৌনক। বাবা-মা পড়াশোনায় সাহায্য করত। এছাড়াও ৭ জন গৃহশিক্ষক ছিল তার পড়াশোনায় সাহায্যের জন্য। দিনভর বই-খাতায় ডুবে থাকত রৌণক। ফলে পরিবারের সদস্যরা জানতই যে ভাল ফল করবে রৌণক। তবে প্রথম হবে তা ভাবেননি কেউ। খোদ রৌনকও তা ভাবতে পারেনি।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

[আরও পড়ুন: আগামী বছর মাধ্যমিক শুরু ফেব্রুয়ারির শেষ সপ্তাহে, দেখে নিন ২০২৩-এর পরীক্ষাসূচি]

ফলাফল জানানোর পর রৌনক জানিয়েছে, ডাক্তার হতে চায় সে। বাবা শিক্ষক তাই মেডিক্যাল কলেজের প্রফেসর হওয়ার লক্ষ্যে এগোবে রৌনক। মেধাবী ওই ছাত্র জানিয়েছেন, পড়াশোনা বাদে গান শিখত সে। রবীন্দ্র সংগীত খুবই পছন্দের তার। ফোনের প্রতি বিশেষ আকর্ষণ ছিল না। অর্ণব ও রৌণকের সাফল্যে উচ্ছ্বসিত পরিবারের সদস্যরা।

[আরও পড়ুন: গাছের সঙ্গে বিয়ে, জঙ্গলের আকন্দ ফুলের মালাবদল! কুরমি সমাজের প্রথায় বিয়ে তরুণ কবির]

Advertisement
Next