shono
Advertisement

মহিলাদের তাড়া খেয়ে লুকিয়েছিলেন, পুলিশের হাতে আটক সন্দেশখালির TMC নেতা অজিত মাইতি

মহিলাদের আক্রমণের মুখে পড়ে অজিত মাইতি প্রায় সাড়ে ৪ ঘণ্টা আশ্রয় নিয়েছিলেন এক সিভিক ভলান্টিয়ারের বাড়িতে।
Posted: 07:15 PM Feb 25, 2024Updated: 07:49 PM Feb 25, 2024

গোবিন্দ রায়: মহিলাদের আক্রমণের মুখে পড়ে প্রায় সাড়ে ৪ ঘণ্টা আশ্রয় নিয়েছিলেন এক সিভিক ভলান্টিয়ারের বাড়িতে। অবশেষে পুলিশের হাতে আটক সন্দেশখালির বেড়মজুরের তৃণমূল নেতা অজিত মাইতি। ইতিমধ্যেই তাঁকে থানায় নিয়ে গিয়েছে পুলিশ।

Advertisement

রাজ্যের দুই মন্ত্রী পার্থ ভৌমিক ও সুজিত বসুর উপস্থিতিতেই রবিবার দুপুরে নতুন করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সন্দেশখালির (Sandeshkhali) বেড়মজুর এলাকা। বেড়মজুর ১-এ তৃণমূলের (TMC) অঞ্চল সভাপতি অজিত মাইতিকে ধাওয়া করেন এলাকার মহিলারা। অভিযোগ, এলাকায় অশান্তির শেষ নেই, নেতা-মন্ত্রীরা এলেও সুরাহা হচ্ছে না। তাই তাঁদের শাড়ি, চুড়ি পরাতে চান। মহিলাদের তাড়া খেয়ে এক সিভিক ভলান্টিয়ারের বাড়িতে আশ্রয় নিলেন অজিত মাইতি। আর জনরোষের মুখে পড়ে দুর্নীতির অভিযোগ স্বীকার করে নিয়ে তিনি ইস্তফা (Resign) দিতে চাইলেন। যদিও পার্থ ভৌমিক ও সুজিত বসু, ২ মন্ত্রীর দাবি, অজিত দলের কেউ নন, তাঁকে আগেই পদ থেকে সরানো হয়েছে।  সবমিলিয়ে, রবিবার দুপুরে মন্ত্রী সুজিত বসু, পার্থ ভৌমিক এবং পদস্থ পুলিশকর্তাদের উপস্থিতিতে নতুন করে বিক্ষোভের আঁচ ছড়াল বেড়মজুর এলাকায়।

[আরও পড়ুন: লাগাতার হিংসায় জ্বলছে সন্দেশখালি, কী বলছেন তারকা সাংসদ নুসরত?]

 স্থানীয়দের তাড়া খেয়ে এক সিভিক ভলান্টিয়ারের বাড়িতে আশ্রয় নেন অঞ্চল সভাপতি।  কোলাপসিবল গেটের আড়াল থেকে হাত জোড় করে মেনে নেন, তাঁর এলাকায় দুর্নীতি হয়েছে। তিনি অঞ্চল সভাপতির পদ ছাড়তে চান।  প্রায় সাড়ে চার ঘণ্টা সেখানেই আটকে ছিলেন অজিতবাবু। পরবর্তীতে তাঁকে আটক করে পুলিশ। নিয়ে যাওয়া হয়েছে মিনাখাঁ থানায়। 

[আরও পড়ুন: সম্প্রীতি উড়ালপুলের গার্ডরেলে বেপরোয়া বাইকের ধাক্কা, মৃত ২]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

Advertisement
toolbarHome ই পেপার toolbarup রাজধানী এক্সপ্রেস toolbarvideo ISL10 toolbarshorts রোববার