shono
Advertisement

Breaking News

LSD 2 Movie Review

'লাভ সেক্স ধোঁকা' নয়, মারণফাঁদের ভিন্ন গল্প বললেন পরিচালক দিবাকর, পড়ুন রিভিউ

বাস্তবের এ কোন আয়না?
Posted: 06:48 PM Apr 19, 2024Updated: 06:58 PM Apr 19, 2024

সুপর্ণা মজুমদার: 'দেখো রে নয়ন মেলে জগতের বাহার...', কিন্তু কোন জগতের বাহার দেখব? অ্যাকচুয়াল না ভার্চুয়াল? বাস্তব আর কল্পনা তো মিলেমিশে একাকার। যে মানুষের মগজাস্ত্রে তৈরি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার জগৎ, সেই মানুষই তাতে হারিয়ে যাচ্ছে। গা ভাসাচ্ছে 'LSD'র চোরাস্রোতে। এই 'LSD' কিন্তু 'লাভ সেক্স অউর ধোঁকা' নয়। পরিচালক দিবাকর বন্দ্যোপাধ্যায় এবার 'লাইক, শেয়ার আর ডাউনলোড'-এর চক্রব্যূহ রচনা করেছেন। তাতেই 'লাভ সেক্স অউর ধোঁকা ২'র গল্প পেয়েছে প্রশ্রয়।

Advertisement

তিন ভাগে গল্প বলেছেন পরিচালক। প্রত্যেক ভাগে বাস্তবের কঙ্কালসার চেহারা ছোঁয়ার চেষ্টা করেছেন তিনি। প্রথম গল্প 'লাইক'-এর প্রতি 'লাভ' নিয়ে। রিয়ালিটি শোয়ের প্রতিযোগী রূপান্তরিত নারী নূর (পরিতোষ তিওয়ারি)। শোয়ে জেতার জন্য সবকিছু করতে পারে সে। নিজের মাকে পর্যন্ত চড় মারতে দ্বিধা বোধ করে। ওই যে বলে না 'গন্দা হ্যায় পর ধান্দা হ্যায় ইয়ে'। সেই চোরাবালির গল্পই দিবাকর, শুভম ও প্রতীকের চিত্রনাট্যে উঠে এসেছে। এই গল্পের অন্যতম অঙ্গ মৌনী রায়, তুষার কাপুর, সোফি চৌধুরী ও অন্নু কাপুর। বাকিদের নাম একই রয়েছে, শুধু অন্নু কাপুর ভিন্ন নাম ব্যবহার করেছেন। কেন? বোঝা গেল না।

দ্বিতীয় গল্প 'শেয়ার' করা 'সেক্স'-এর। এই গল্প কুলুর (বণিতা রাজপুরোহিত)। স্টেশনের সাফাইকর্মী হিসেবে কাজ করে কুলু। ধর্ষণের স্বীকার হয়। আহত অবস্থায় ঝোপ থেকে উদ্ধার করা হয় তাকে। সিনিয়র লাভিনার (স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়) কথায় থানায় মামলা দায়ের করে। কিন্তু তার পর? কুলুর মতো তৃতীয় লিঙ্গের মানুষরা কী বিচার পায়? না সে বাণী সভ্য সমাজের নর্দমায় বাসি খাবারের মতো পড়ে থাকে? এই প্রশ্ন রেখেই তৃতীয় গল্পে চলে যান পরিচালক।

[আরও পড়ুন: খুনের হুমকি, বাড়িতে হামলা, কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ভারত ছাড়লেন সলমন! কোথায় গেলেন?]

'গেম পাপী' শুভম। যে কোনও মূল্যে ফলোয়ার্স চাই তার। হোক না মিমের 'ধোঁকা'। ডাউনলোড হোক যৌনদৃশ্য। বেপরোয়া খেলায় মেতে ওঠে শুভম (অভিনব সন্তোষ সিং)। কোথায় শেষ হবে এই খেলা? প্রশ্নের উত্তর পেলে যেতে হবে সিনেমা হলে। তবে তার জন্য আপনাকে প্রাপ্ত বয়স্ক হতে হবে। এই গল্পেই উরফি জাভেদকে দেখা যাবে।

প্রথম কথা, সিনেমা যদি প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্যই হয় তাহলে বোল্ড সাবজেক্ট বোল্ডনেস নিয়েই দেখানো উচিত নয় কি? গালিগালাজ মিউট করে বা নগ্ন দৃশ্য ব্লার করার কোনও মানে আছে? অবশ্য তা সেন্সরের কর্তাব্যক্তিরাই ভালো বলতে পারবেন। দিবাকর আগের ছবিতে গেরিলা ফিল্ম মেকিং স্টাইল ব্যবহার করেছিলেন। এবার রিয়ালিটি চেক দিতে তিনি মোবাইল ফ্রেম ব্যবহার করেছেন। ছবির বিষয়বস্তু বেশ ভালো। তবে প্রথম গল্প একটু খাপছাড়া মনে হয়েছে। নূরের চরিত্রে অবশ্য পারিতোষ দূরন্ত অভিনয় করেছেন।

দ্বিতীয় গল্পের সময় দিবাকর যেন হারানো সুর ফিরে পাচ্ছিলেন। আবার সেখানে বনিতা-স্বস্তিকার যুগলবন্দিও পেয়েছেন। তৃতীয় গল্পে পরিচালক ফুল ফর্মে ব্যাটিং করেছেন। শুভম ওরফে গেম পাপীর চরিত্রে অভিনব সন্তোষ সিংও দুরন্ত। বলতে গেলে সিনেমা হলের চারপাশে আয়না সাজিয়ে দিয়েছেন পরিচালক। আর 'লাভ সেক্স অউর ধোঁকা'র সেই আয়নায় তিনি দেখিয়েছেন 'লাইক, শেয়ার আর ডাউনলোড'-এর মারণফাঁদ। এই ফাঁদে পা দেবেন, নাকি বিরত থাকবেন সে আপনার সিদ্ধান্ত।

ছবি - লাভ সেক্স অউর ধোঁকা ২
অভিনয়ে - পরিতোষ তিওয়ারি, বণিতা রাজপুরোহিত, অভিনব সন্তোষ সিং, স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়, উরফি জাভেদ, মৌনী রায়, তুষার কাপুর, সোফি চৌধুরী, অন্নু কাপুর, স্বরূপা ঘোষ প্রমুখ
পরিচালনা - দিবাকর বন্দ্যোপাধ্যায়

[আরও পড়ুন: বাজেয়াপ্ত ১০০ কোটির সম্পত্তি, সিংহর মতো ‘গর্জন’ শিল্পা-রাজের, দিলেন ইঙ্গিতপূর্ণ পোস্ট!]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

Advertisement