২১ আগস্ট শুরু কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচন, এখনও রাহুলের অবস্থান নিয়ে ধোঁয়াশা

11:13 AM Aug 12, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বহু টালবাহানা, টানাপোড়েনের পর অবশেষে শুরু হচ্ছে কংগ্রেসের স্থায়ী সভাপতি নির্বাচন প্রক্রিয়া। পূর্ব ঘোষণামতো আগামী ২১ আগস্টই কংগ্রেসের (Congress) সভাপতি নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার কথা। এই নির্বাচন প্রক্রিয়া শেষ হবে ২০ সেপ্টেম্বর। একমাস ব্যাপী এই সভাপতি নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হবে একেবারে নিচুতলা থেকে। সূত্রের খবর, এআইসিসি-র প্রায় ৯ হাজার প্রতিনিধি সভাপতি নির্বাচনে ভোট দেবেন। সবরকম প্রস্তুতিও সেরে ফেলা হয়েছে।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

সবই ঠিক আছে। কিন্তু সবচেয়ে বড় প্রশ্নের জবাব এখনও মেলেনি। রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi) কি ফের কংগ্রেসের সভাপতি পদে বসবেন? নাকি এখন যেভাবে সভাপতি পদে না থেকেও দলের অধিকাংশ সিদ্ধান্ত নিয়ন্ত্রণ করছেন, সেটাই করতে থাকবেন? দলীয় সূত্রের খবর, রাহুল সভাপতি পদে লড়তে চাইলে, প্রায় গোটা দলই তাঁকে সমর্থন করবে। সেক্ষেত্রে আগের বারের মতো বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাতেই জিতে আসতে পারেন তিনি। দলের পুরনো নেতারা সবাই তাঁকে পছন্দ না করলেও রাহুল সভাপতি নির্বাচনে অংশ নিলে তাঁদের আপত্তি ধোপে টিকবে না।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

[আরও পড়ুন: ব্যবসায়ী-বিএসএফ-রাজনৈতিক নেতাদের ‘মধুচক্র’, গরু পাচার মামলার ইতিহাস জানেন?]

কিন্তু সমস্যা হল প্রায় গোটা দল তাঁকে সভাপতির পদে চাইলেও রাহুল নিজে এখনও এ নিয়ে নীরব। আদৌ তিনি সভাপতি নির্বাচনে অংশ নেবেন কিনা সেটা খোলসা করেননি। এদিকে আবার নতুন করে সক্রিয় হয়ে উঠেছেন তিনি। শুক্রবারই তিনি যাচ্ছেন রাজস্থানের আলওয়ারে। যেখানে আগামী বছরের শুরুতেই ভোট। আগামী ১৫ আগস্ট বেঙ্গালুরুতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করবেন তিনি। আগামী মাসের গোড়ার দিকে দেশজুড়ে কংগ্রেস যে ‘ভারত জোড়ো’ যাত্রা শুরু করছে, তাতেও নেতৃত্ব দেবেন রাহুল। ১৫০ দিন ধরে প্রায় ৩ হাজার কিলোমিটার পদযাত্রায় নেতৃত্ব দেবেন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি। সমস্যা হল সক্রিয় হয়ে উঠলেও রাহুল এখনও সভাপতি হওয়া নিয়ে উচ্চবাচ্চ করছেন না। সেটাই চিন্তায় রাখছে দলীয় নেতৃত্বকে।

[আরও পড়ুন: ‘দল চাইলেই PG থেকে রিপোর্ট বের করতে পারত’, CBI-তে অনুব্রতর গরহাজিরা নিয়ে বিস্ফোরক মদন]

শেষ পর্যন্ত যদি রাহুল রাজি না হন, তাহলে কী হবে? এখনও জানেন না হাত শিবিরের শীর্ষ নেতারা। সোনিয়ার নেতৃত্বে নবীন-প্রবীণের সমন্বয় রক্ষাটা ভালভাবে হচ্ছিল। কিন্তু শারীরিক অসুস্থতার কথা ভেবে সোনিয়াকে (Sonia Gandhi) আর দায়িত্ব দেওয়া যায় না। প্রিয়াঙ্কাও (Priyanka Gandhi) এখনও সভানেত্রী হতে রাজি নন। সেক্ষেত্রে গান্ধী পরিবারের বাইরে কাউকে ভাবতে হবে। কিন্তু কাকে? সেটা এখনও ঠিক হয়নি। সেক্ষেত্রে কি রাহুল ঘনিষ্ঠই কেউ সভাপতির দায়িত্ব পাবেন? প্রশ্ন কংগ্রেসের অন্দরে।

Advertisement
Next