‘মেরে পাস বহেন হ্যায়’, মহিলা কম্যান্ডোদের হাতে নিরাপত্তার দায়িত্ব যাওয়ায় খুশি প্রিয়াঙ্কা

11:46 AM Dec 24, 2021 |
Advertisement

সোমনাথ রায়, নয়াদিল্লি: উত্তরপ্রদেশের আসন্ন নির্বাচনে তাঁর নেতৃত্বেই কংগ্রেস স্লোগান দিয়েছে, ‘লড়কি হু, লড় সকতি হু।’ এই স্লোগান সম্বলিত ব্যাচ সবসময়ই দেখা যাচ্ছে তাঁর পোশাকে। সেই প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর নিরাপত্তার দায়িত্বে মোতায়েন করা হচ্ছে সিআরপিএফের মহিলা কমান্ডোদের। এছাড়া কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah), প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ডা. মনমোহন সিং, সোনিয়া গান্ধী (Sonia Gandhi) ও রাহুল গান্ধীর (Rahul Gandhi) বাড়ির নিরাপত্তার দায়িত্বেও থাকবেন মহিলা সিআরপিএফের প্রথম ব্যাজের ৩২ কমান্ডো। এই বিষয়ে তাঁর যে কোনও আপত্তি নেই, উলটে বেশ খুশি, বৃহস্পতিবার সংবাদ প্রতিদিন-কে সেই কথা জানালেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী স্বয়ং।

Advertisement

দেশের বৃহত্তম রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের আগে যে কয়েকটি ইস্যুতে জোর দিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh Election) দায়িত্বে থাকা কংগ্রেসের অন্যতম সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক, তার মধ্যে প্রায় সর্বাধিক গুরুত্ব পেয়েছে নারী ক্ষমতায়ন। ইতিমধ্যেই প্রিয়াঙ্কা ঘোষণা করেছেন আসন্ন নির্বাচনে কংগ্রেস ৪০ শতাংশ কেন্দ্রে টিকিট দেবে মহিলাদের। এমনকী, ক্ষমতায় এলে রাজ্য সরকারের চাকরিতেও মহিলাদের ৪০ শতাংশ সংরক্ষণ করার ঘোষণা করা হয়েছে। দ্বাদশ ও স্নাতকস্তরে উত্তীর্ন ছাত্রীদের স্মার্টফোন ও স্কুটি দেওয়ার ঘোষণাও হয়েছে। সম্প্রতি বিখ্যাত হিন্দি ছবি দিওয়ারে শশি কাপুরের সংলাপ ধার করে বলেছেন, ‘মেরে পাস বহেন হ্যায় (আমার সঙ্গে বোনেরা আছে)।’ এবার তাঁর নিরাপত্তায় মোতায়েন করা হচ্ছে মহিলা কমান্ডো।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: ওমিক্রনের জন্য পিছিয়ে দিন উত্তরপ্রদেশের ভোট, প্রধানমন্ত্রীর কাছে আরজি এলাহাবাদ হাই কোর্টের]

২০১২ সালে সন্ত্রাস দমন বিভাগে দেশের শ্রেষ্ঠ শাখা ন্যাশনাল সিকিউরিটি গার্ড (এনএসজি)-র প্রথম মহিলা ব্যাজ মোতায়েন হয়। সেই ২৫ জনকে ভাগ করে দেওয়া হয় বহুজন সমাজ পার্টি (BSP) ও এআইএডিএমকে (AIADMK) সুপ্রিমো মায়াবতী ও জয়ললিতার নিরাপত্তার দায়িত্ব। সেই সময় অবশ্য দেশের তৎকালীন অন্যতম শীর্ষ দুই মহিলা নেত্রী এতে অসন্তোষ প্রকাশ করেন। যা নিয়ে বেশ জলঘোলা হয়। তবে প্রিয়াঙ্কার অবশ্য মহিলা নিরাপত্তা নিয়ে কোনও আপত্তি নেই। বৃহস্পতিবার কংগ্রেসের সদর দপ্তর, ২৪, আকবর রোডে সাংবাদিক সম্মেলনের পর একান্ত আলাপচারিতায় তিনি বলেন, “আমরা তো বরাবরই নারীদের উন্নতির কথা বলে এসেছি। দিল্লি-সহ অন্যান্য পুলিশ ফোর্সে ন্যুনতম ২৫ শতাংশ মহিলাদের জন্য সংরক্ষণের দাবি করেছি। আমি খুশি যে, আমার নিরাপত্তার দায়িত্ব বোনদের উপর দেওয়া হল। অসুর বিনাশ কিন্তু একজন নারীই করেছিল।” উল্লেখ্য, গান্ধী পরিবারের তিন সদস্য ও প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ডা. মনমোহন সিংয়ের নিরাপত্তার দায়িত্বে যখন স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপ (SPG) ছিল, তখনও পুরুষদের সঙ্গে নারী কমান্ডোরা থাকতেন প্রিয়াঙ্কাদের সঙ্গে।

[আরও পড়ুন: অস্তিত্বরক্ষায় হাতে অস্ত্র তুলে নিক হিন্দুরা, হরিদ্বারে ‘ধর্ম সংসদে’ গণহত্যার উসকানি!]

নির্বাচনের আগে বারবার নারীশক্তির উন্নতির লক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচি নেওয়া প্রিয়াঙ্কা আসন্ন নির্বাচনী প্রচারে মহিলা নিরাপত্তার বিষয়টিকে হাতিয়ার করতে চলছেন বলেই খবর কংগ্রেসের (Congress) অন্দরমহলে। তবে তার আগে রবিবার মহিলাদের জন্য লখনউতে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে এক ম্যারাথন ও ক্যুইজ প্রতিযোগিতা। ম্যারাথন জয়ীকে স্কুটি ও ক্যুইজ জয়ীকে দেওয়া হবে স্মার্টফোন।

Advertisement
Next