বেনজির ঘটনা, নতুন প্রধান বিচারপতির শুনানি ব‌্যবস্থা নিয়ে প্রকাশ্যেই ক্ষুব্ধ দুই সুপ্রিম-বিচারপতি

09:34 AM Sep 16, 2022 |
Advertisement

স্টাফ রিপোর্টার, নয়াদিল্লি: বৃহস্পতিবার এক বেনজির ঘটনার সাক্ষী থাকল ভারতীয় বিচারব্যবস্থা। সুপ্রিম কোর্টে বিচারপতি সঞ্জয় কিষান কউল ও অভয় এস ওকার বেঞ্চ প্রধান বিচারপতির শুনানি ব্যবস্থা সম্পর্কে উষ্মা প্রকাশ করেন। তাও আবার প্রকাশ্যে লিখিতভাবে, নির্দেশ দিতে গিয়ে।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

নতুন প্রধান বিচারপতি ইউইউ ললিত দায়িত্ব নেওয়ার পর শীর্ষ আদালতের শুনানি ব্যবস্থায় কিছু বদল এনেছেন। সোম ও শুক্রবার দুই বিচারপতির ১৫টি বেঞ্চ নতুন দায়ের হওয়া মামলার শুনানি করে। মঙ্গল থেকে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে দশটা থেকে একটা পর্যন্ত তিন বিচারপতির ১০টি বেঞ্চে চলে পুরনো মামলা। কিছু গুরুত্বপূর্ণ মামলা চলে চার ও পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চেও।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: এসএসসি দু্র্নীতি মামলায় গ্রেপ্তার মধ্যশিক্ষা পর্ষদের প্রাক্তন সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়]

এই তিনদিন দুপুর দুটো থেকে দুই বিচারপতির ১৫টি বেঞ্চকে ৩০টি করে মামলা শুনতে হয়। অর্থাৎ মামলা পিছু হাতে থাকে মাত্র চার মিনিট। যদিও মঙ্গলবার থেকে মামলার সংখ্যা ৩০ থেকে কমিয়ে ২০টি করা হয়েছে। সেক্ষেত্রেও গড়ে থাকছে মাত্র ছ’মিনিট। এই প্রসঙ্গেই এদিন বিচারপতি কউল ও বিচারপতি ওকার বেঞ্চ উষ্মা প্রকাশ করেছে বলে আদালত সূত্রের খবর।
উল্লেখ্য, গত মাসের শেষে দেশের ৪৯তম প্রধান বিচারপতি (Chief Justice of India) হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন বিচারপতি উদয় উমেশ ললিত। এনভি রামানার স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন তিনি। বিচারপতি এসএম সিকরির (SM Sikri) পরে ললিতই দ্বিতীয় বিচারপতি যিনি সরাসরি বার থেকে প্রধান বিচারপতি হয়েছেন।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

প্রধান বিচারপতির পদে ললিতের বেশিদিন থাকা হবে না। মাত্র আড়াই মাস এই পদে থাকবেন তিনি। আগামী ৮ নভেম্বর ললিতের ৬৫ বছর বয়স পূর্ণ হবে। তারপরই অবসর নেবেন তিনি। নিয়ম অনুযায়ী ৬৫ বছরের বেশি বয়সে প্রধান বিচারপতির পদে থাকা যায় না। এর আগে মাত্র চারজন ললিতের থেকে কম সময়ের জন্য প্রধান বিচারপতি পদে ছিলেন।

[আরও পড়ুন: ‘ধর্ষণের পর বিয়ে করতে বলেছিল ওরা, তাই খুন করেছি’, জেরায় কবুল লখিমপুরের অভিযুক্তদের]

Advertisement
Next