বেতন বৃদ্ধির দাবিতে নবান্নের সামনে বিক্ষোভ SSK-MSK শিক্ষকদের, পুলিশের সঙ্গে ধুন্ধুমার

03:46 PM Aug 18, 2021 |
Advertisement

দীপঙ্কর মণ্ডল: বেতনবৃদ্ধির দাবিতে এবার সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীর দরবারে শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের সদস্যরা। বুধবার নবান্নের (Nabanna) সামনেই কয়েকশো শিক্ষক জড়ো হয়ে বিক্ষোভ দেখান। তাঁদের দাবি, গত ৮ মাস ধরে বেতন বাড়ছে না। এবার সেই অভিযোগ তাঁরা সরাসরি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই জানাবেন। বুধবার নবান্নে উচ্চপর্যায়ের বৈঠক রয়েছে। তার ঠিক আগেই নবান্নের সামনে হাইসিকিউরিটি জোনে (High Security Zone) কীভাবে ঢুকে পড়লেন এতজন, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। বিক্ষোভ বাড়তে থাকায় পুলিশ নবান্নের সামনে থেকে সরিয়ে নেয়। সেখানে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের ধুন্ধুমার বাধে। সংঘর্ষে অসুস্থ হয়ে পড়েন বেশ কয়েকজন মহিলা।

Advertisement

টানা ৮ বছর। SSK ও MSK-র শিক্ষকদের কোনও বেতন বাড়েনি। বহুদিন ধরে সেই বেতনবৃদ্ধির দাবিতে তাঁরা আন্দোলন করছেন। দাবি, প্রাথমিক ও উচ্চপ্রাথমিকের সমতুল বেতন চাই। এর জন্য সল্টলেকের বিকাশ ভবনের সামনে আগেও বেশ কয়েকবার অবস্থান বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের সদস্যরা। তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় তাঁদের দাবিপূরণের আশ্বাসও দিয়েছিলেন বলে দাবি। কিন্তু তারপরও সুরাহা হয়নি বলে এদিন সরাসরি নবান্নের সামনে এসে নিজেদের প্রতিবাদ জানান SSK, MSK-র কয়েকশো শিক্ষক।

[আরও পড়ুন: Coronavirus: এবার রবিবারও চলবে Metro, কবে থেকে মিলবে পরিষেবা?]

মঙ্গলবার এই শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের তরফে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু (Bratya Basu) ‘নিখোঁজ’ বলে পোস্টার দিয়ে থানায় মিসিং ডায়েরি দায়ের করা হয়েছিল। অভিযোগ, তাঁদের এতদিনকার দাবি পূরণে বারবার আশ্বাস মিললেও তা বাস্তবায়নে উদাসীন প্রশাসন। সেই কারণে শিক্ষামন্ত্রীকে  ‘নিখোঁজ’ বলে প্রতীকী প্রতিবাদ করেছিল মুক্ত মঞ্চ।

Advertising
Advertising

আর তার পরেরদিনই একেবারে নবান্নের সামনে বিক্ষোভ। নবান্নের অদূরেই বাসস্ট্যান্ড। ওই এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি থাকে। তা সত্ত্বেও কয়েকশো জনের বিক্ষোভ হঠাতে সঙ্গে সঙ্গে বাড়তি পুলিশবাহিনী ছুটে যায় সেখানে। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের ধুন্ধুমার বেধে যায়। বেশ কয়েকজনকে পুলিশ আটক করে প্রিজন ভ্যানে তুলে নিয়ে যায়। পরে অবশ্য বিক্ষোভকারীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যান।  

[আরও পড়ুন: ফের চালকের আসনে Firhad Hakim, এবার কলকাতার রাস্তায় ছোটালেন CNG ও ডিজেল চালিত বাস]

Advertisement
Next