Advertisement

নিম্নচাপের হাত ধরে বঙ্গে প্রবেশ বর্ষার, আজও দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা

09:38 AM Jun 12, 2021 |
Advertisement
Advertisement

নব্যেন্দু হাজরা: উত্তরবঙ্গে প্রবেশের পাঁচদিন পর দক্ষিণবঙ্গে ঢুকল বর্ষা (Monsoon)। শুক্রবার দক্ষিণবঙ্গের একাংশে বর্ষা প্রবেশ করেছে বলে জানিয়েছে মৌসম ভবন। আলিপুর হাওয়া অফিসের তরফে জানানো হয়েছে, রবিবারের মধ্যে রাজ্যের বাকি অংশে প্রবেশ করবে বর্ষা। সাধারণত জুনের দ্বিতীয় সপ্তাহের শেষের দিকে দক্ষিণবঙ্গে প্রবেশ করে বর্ষা। এবার স্বাভাবিক সময়েই প্রবেশ করল মৌসুমি বায়ু। আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, ক্যানিং, কৃষ্ণনগর, মালদহে এদিন বর্ষা প্রবেশ করেছে। এই জায়গাগুলোর উপর দিয়ে বিস্তৃত রয়েছে মৌসুমী বায়ুর উত্তরসীমা। মৌসুমী বায়ু প্রবেশের পরই বর্ষার বৃষ্টি শুরু হয়েছে ওই এলাকায়। এর পাশাপাশি দক্ষিণবঙ্গের অন্যত্রও এদিন থেকে বৃষ্টি শুরু হয়েছে। উপকূলবর্তী জেলাগুলোতে ছিল ঝোড়ো হাওয়া। তবে অমাবস্যার ভরা কোটালের কারণে সমুদ্রে এবং গঙ্গায় যে জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা করা হয়েছিল, তা খুব বেশি হয়নি।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

শুক্রবার সকালেই উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে একটি নিম্নচাপ ঘনীভূত হয়েছে। যা শনিবার আরও শক্তিশালী হবে। ফলে বৃষ্টি বাড়বে বঙ্গে। ক্রমশ ওই নিম্নচাপ উত্তর-পশ্চিম দিকে সরে ওড়িশায় ঢুকে যাবে। ফলে ওড়িশায় (Odisha) বেশি বৃষ্টি হবে। হতে পারে সাইক্লোনও। এজন্য জগৎসিংপুর, কটক, অঙ্গুল, সম্বলপুরে প্রবল বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। বৃষ্টি হচ্ছে কেন্দাপাড়াতেও। প্রশাসনের তরফে সমস্ত রকম প্রস্তুতি রাখা হয়েছে। অলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের তরফে জানানো হয়েছে, শনিবার উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই বৃষ্টি হবে। তবে রবিবার বিকেলের পর কলকাতা-সহ হাওড়া-হুগলিতে বৃষ্টি কমলেও তা বাড়বে রাজ্যের পশ্চিমের জেলাগুলোতে। শনিবার বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দুই ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, কলকাতা, হাওড়া, হুগলিতে। সেই সঙ্গে উপকূলবর্তী জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: বিজেপিতে মোহভঙ্গ? ফের তৃণমূলে ফিরতে চান মুকুল ঘনিষ্ঠ মনিরুল-গদাধর]

বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম বর্ধমান, ঝাড়গ্রামে বেশি বৃষ্টি হবে কাল থেকে। ১১ থেকে ১৪ তারিখ পর্যন্ত মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে না যেতে বলা হয়েছে। সেই সঙ্গে বৃষ্টির সময় সাধারণ মানুষকে রাস্তায় বা মাঠে থাকতে নিষেধ জরা হয়েছে। মৌসম ভবনের পূর্বাঞ্চলীয় প্রধান, উপমহানির্দেশক সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “নিম্নচাপের হাত ধরে শুক্রবারই দক্ষিণবঙ্গের কয়েকটা জায়গায় বর্ষা প্রবেশ করেছে। দিনদুয়েকের মধ্যে গোটা রাজ্যেই তা প্রবেশ করবে।

[আরও পড়ুন: ‘দড়ি ছিঁড়ে বেরনো গরুকে খুঁটিতে বাঁধা হল’, মুকুল রায়ের ঘরে ফেরা নিয়ে মন্তব্য অনুব্রতর]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next