বাড়িতে বসেই রেশন কার্ডের সঙ্গে Aadhaar সংযোগ! মুশকিল আসানে দুয়ারে প্রশাসন

01:34 PM Jun 24, 2021 |
Advertisement

অর্ণব দাস: দুয়ারে সরকার ও দুয়ারে রেশনের পর এবার আধার এবং রেশন কার্ড (Ration Card) সংযুক্তিকরণের কর্মসূচিও দুয়ারে। রীতিমতো বাড়িতে এসে রাজ্যের নাগরিকদের রেশন কার্ডের সঙ্গে আধার ( Aadhaar) সংযুক্তিকরণের কাজ করে দেবেন রাজ্য সরকারের খাদ্য দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থার কর্মীরা। বস্তুত, খাদ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে আগস্ট মাস থেকে রেশনে খাদ্যশস্য সংগ্রহ করার ক্ষেত্রে আধার সংযুক্তিকরণ আবশ্যক।

Advertisement

ইতিমধ্যে এই আধার এবং রেশন কার্ড সংযুক্তিকরণের কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। সরাসরি রেশন ডিলারের কাছে গিয়ে কিংবা খাদ্য দপ্তরের স্থানীয় অফিসে গিয়ে ১১ নম্বর ফর্ম পূরণ করে বা বাংলা সহায়ক কেন্দ্র গিয়ে আধার এবং রেশন কার্ডের সংযুক্তিকরণের কাজ করা হচ্ছে। প্রকল্পের দ্রুত বাস্তবায়নের জন্যই এই ব্যবস্থা বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী রথীন ঘোষ। জুন মাসের শেষ থেকেই শুরু হবে এই কাজ। পরে রাজ্যের যে কোনও এলাকা থেকেই তোলা যাবে রেশন। মোবাইলে চলে আসবে মেসেজও। সবটাই প্রযুক্তির ব্যবহারে স্বচ্ছতায় সবাইকে সুবিধা প্রদানের জন্য। দপ্তর সূত্রে খবর, খাদ্য দপ্তরের ওয়েবসাইটে থেকে নিজেরাও এই সংযুক্তিকরণ করতে পারবেন। এছাড়াও জুন মাসের শেষের দিকে বাড়ি বাড়ি গিয়ে আধার এবং রেশন কার্ডের সংযুক্তিকরণের কাজ শুরু হবে।

[আরও পড়ুন: বিজেপি কর্মীদের শুদ্ধিকরণ! অনুব্রতর গড়ে স্যানিটাইজেশনের পর তৃণমূলের ফিরলেন ১৫০ জন]

খাদ্যমন্ত্রী রথীন ঘোষকে এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে বলেন, “আধার কার্ড এবং রেশন কার্ডের সংযুক্তিকরণের কাজে দ্রুততা আনতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই আধার ও রেশন কার্ড লিংকের কাজ শুরু হয়ে গিছে। পাশাপাশি একটি সংস্থাকে বাড়ি-বাড়ি গিয়ে এই আধার এবং রেশন কার্ডের সংযুক্তিকরণের কাজটি করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।” যেহেতু আগস্ট থেকে আধার এবং রেশন কার্ড সংযুক্তিকরণ রেশন নেওয়ার ক্ষেত্রে আবশ্যক সেক্ষেত্রে পরিবারের কোনও সদস্যের যদি আধার কার্ড না থাকে তাহলে রেশন গ্রহণের ক্ষেত্রে সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে। এই বিষয়ে ইতিমধ্যেই জেলাশাসকের সঙ্গে কথা বলেছেন মন্ত্রী ও সচিব। যাদের ক্ষেত্রে এই সমস্যা আছে তাদের জন্য আধার কার্ড তৈরির ব্যাপারে প্রশাসনের পক্ষ থেকে উদ্যোগ নেওয়া হবে। খাদ্যমন্ত্রী আরও বলেন, “আধার এবং রেশন কার্ড সংযুক্তিকরণ হয়ে গেলে রাজ্যের যে কোনও প্রান্ত থেকে রাজ্যবাসী রেশন তোলার সুবিধা পাবেন। পাশাপাশি মোবাইলে মেসেজের মাধ্যমে কত পরিমাণ রেশন তোলা হয়েছে তা গ্রাহকরা জানতে পারবেন।”

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: অতিমারীতে ফের পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত টেলিফোনিক ক্লাস, ভাবনা শিক্ষা দপ্তরের]

Advertisement
Next