Advertisement

করোনামুক্তির পরও শেষরক্ষা হল না, প্রয়াত নলহাটির প্রাক্তন বিধায়ক মইনুদ্দিন শামস

10:01 AM May 23, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: করোনার কবল থেকে সুস্থ হওয়ার পর প্রয়াত বীরভূমের নলহাটির প্রাক্তন বিধায়ক মইনুদ্দিন শামস (Moinuddin Sams)। আজ ভোরে তাঁর মৃত্যু হয় বলে খবর। কোভিড (COVID-19) পজিটিভ হয়ে কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন ছিলেন। তবে করোনামুক্ত হয়ে বাড়িতেও ফিরে যান। এরপর রবিবার ভোরে আচমকা তাঁর মৃত্যুসংবাদ। এই খবরে শোকের পাশাপাশি বিস্মিত হয়েছেন তাঁর ঘনিষ্ঠরা। পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের স্থানীয় সদস্যরা।

Advertisement

জানা গিয়েছে, গত ৫ মে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন বছর চুয়ান্নর মইনুদ্দিন। শরীরে কোভিডের নানা উপসর্গ থাকায় তাঁর করোনা পরীক্ষা হয়। রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর কলকাতায় এনে এক বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন ছিলেন। বুধবার সুস্থ হয়ে বীরভূমের বাড়িতেও ফিরে যান। কিন্তু তারপর রবিবার ভোর ৫টা নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন প্রাক্তন ফরওয়ার্ড ব্লক (Forward Bloc) নেতা তথা তৃণমূলের প্রাক্তন বিধায়ক মইনুদ্দিন শামস। প্রাথমিক অনুমান, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তাঁর মৃত্যু হয়েছে। 

[আরও পড়ুন: বাঁকুড়ায় ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের থাবা, আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৩ করোনা রোগী]

প্রসঙ্গত, বাম শরিক দল ফরওয়ার্ড ব্লকে যোগদানের মাধ্যমে নিজের রাজনৈতিক কেরিয়ার শুরু করেছিলেন মইনুদ্দিন শামস। তাঁর বাবা কলিমুদ্দিন শামস ছিলেন বাম আমলে রাজ্যের মন্ত্রী। তবে পরবর্তী সময়ে মইনুদ্দিন বাবার দল ছেড়ে শাসকদল তৃণমূলে (TMC) যোগ দেন। ২০১৬ সালে নলহাটি কেন্দ্র থেকে জিতে বিধায়ক হন। তবে একুশে আর তৃণমূলের প্রার্থী হতে পারেননি তিনি। ফিরে যেতে চেয়েছিলেন পূর্বের রাজনৈতিক দল ফরওয়ার্ড ব্লকে। কিন্তু বামফ্রন্টের কঠোর নিয়মনীতির বেড়াজালে তাঁকে ফেরানো হয়নি। তাতেও দমে না গিয়ে নলহাটি কেন্দ্র থেকে নির্দল প্রার্থী হয়ে এবারের ভোটে লড়েছিলেন মইনুদ্দিন। তার পরপরই অসুস্থ হয়ে পড়েন। করোনা আক্রান্ত হন। তবে তা থেকে মুক্ত হওয়ার পরও জীবনে ফিরতে পারলেন না। মাত্র ৫৪ বছর বয়সেই জীবনে ইতি পড়ল।

[আরও পড়ুন: বিকেলের পর বৃষ্টিতে ভিজতে পারে রাজ্য, হাওয়া অফিসের পূর্বাভাসে স্বস্তির আভাস]

Advertisement
Next