Farmers Protest: সরকারের সঙ্গে আলোচনায় কমিটি গঠন, প্রথমবার আন্দোলন প্রত্যাহারের ইঙ্গিত কৃষকদের

07:06 PM Dec 04, 2021 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কৃষি আইন প্রত্যাহার হওয়ার চারদিন পরই সুর নরম সংযুক্ত কিষান মোর্চার (Sanyukta Kisan Morcha)। প্রথমবার কৃষক বিক্ষোভ প্রত্যাহার করার ইঙ্গিত দিল কৃষকদের বিভিন্ন সংগঠনের ঐক্যমঞ্চ। কৃষক আন্দোলনের রণনীতি ঠিক করতে শনিবার এক গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে বসেছিল সংযুক্ত কিষান মোর্চা। সেখানে সরকারের সঙ্গে আলোচনার জন্য ৫ সদস্যের এক কমিটি গঠন করেছে তারা। সেই সঙ্গে সংযুক্ত কিষান মোর্চার (SKM) তরফে ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে,সরকারের সঙ্গে আলোচনা যদি সদর্থক হয়, তাহলে কৃষকরা আন্দোলন প্রত্যাহার করে নেওয়া হতে পারে। তবে, আপাতত আন্দোলন চলবে।

Advertisement

বস্তুত, কৃষকদের প্রায় এক বছরের আন্দোলনের পর গুরুনানকের জন্মদিন দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়ে তিনটি বিতর্কিত কৃষি আইন প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেদিনই আন্দোলন ছেড়ে কৃষকদের মাঠে নামতে অনুরোধ করেন মোদি (Narendra Modi)। কিন্তু কৃষকরা প্রধানমন্ত্রীর মৌখিক আশ্বাসে ভরসা রাখতে পারেননি। তারপর কেন্দ্র সংসদে বিল পেশ করে সরকারিভাবে আইন প্রত্যাহার করেছে। কিন্তু কৃষক বিক্ষোভ প্রত্যাহার হয়নি। সংযুক্ত কিষান মোর্চা সেসময় জানিয়ে দেয়, কৃষি আইন (Farm laws) প্রত্যাহার ছাড়াও কৃষকদের আরও বেশ কিছু দাবি আছে। সেসব দাবি নিয়ে সরকার যতদিন না আলোচনা শুরু করছে ততদিন আন্দোলন চলবে।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: নির্বাচনে নেই, তবুও উত্তরপ্রদেশের ভোটে বিজেপির জয়ের কাঁটা হতে চায় কিষান মোর্চা]

সেই হুঁশিয়ারির পরই কৃষকদের সঙ্গে আলোচনার প্রক্রিয়া শুরু করে সরকার। দিন কয়েক আগে কেন্দ্রের এক মন্ত্রী সংযুক্ত কিষান মোর্চার নেতাদের ফোন করেন। এবং আলোচনায় আহ্বান জানান। শুধু তাই নয়, শুক্রবার নাকি খোদ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) কৃষকনেতাদের ফোন করেন। কৃষকনেতা যুধাবীর সিং জানিয়েছেন,”আমিত শাহ গতকাল রাতে ফোন করেছিলেন। তিনি বলেন, আইন প্রত্যাহার হয়েছে। সরকার এই সমস্যার স্থায়ী সমাধানের ব্যাপারে বাড়তি গুরুত্ব দিচ্ছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীই চাইছিলেন আমরা কমিটি গড়ে সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসি।”

[আরও পড়ুন: ‘মমতাকে স্বাগত’, তৃণমূলের পথেই উত্তরপ্রদেশে বিজেপিকে সাফ করতে চান অখিলেশ]

শনিবারের বৈঠকে আন্দোলনকারী কৃষকরা পাঁচ সদস্যের এক কমিটি গঠন করেছেন। কৃষক নেতাদের বক্তব্য, তাঁদের এই কমিটি সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসবে। সেই আলোচনার ফলাফল নিয়ে আগামী ৭ ডিসেম্বর আবার তাঁরা বৈঠক করবেন। কেন্দ্রের সঙ্গে আলোচনায় কোনও সদর্থক বার্তা উঠে এলে আন্দোলন প্রত্যাহার হওয়ারও সম্ভাবনা আছে।

Advertisement
Next