‘হর ঘর তেরঙ্গা’র ফলে দেশে ৫০০ কোটি টাকার ব্যবসা, কর্মসংস্থান অন্তত দশ লক্ষ মানুষের

03:46 PM Aug 16, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হর ঘর তেরঙ্গা (Har Ghar Tiranga) কর্মসূচির ফলে প্রায় ৫০০ কোটি টাকার বাণিজ্যিক লেনদেন হয়েছে, এমনটাই জানিয়েছে কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্স (CAIT)। অন্তত তিরিশ কোটি জাতীয় পতাকা বিক্রি হয়েছে গত পনেরো দিনে। এই কর্মসূচির ফলে অন্তত দশ লক্ষ মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে। শুধু তাই নয়, খুব কম সময়ের মধ্যে বিশাল পরিমাণ পতাকা তৈরি করে নজির গড়েছে ভারত। প্রসঙ্গত, এর আগে স্বাধীনতা দিবসের সময়ে দেড়শো কোটি টাকার পতাকা বিক্রি হত।

Advertisement

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ১৩ থেকে ১৫ আগস্ট প্রত্যেকটি বাড়িতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করতে ডাক দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। সেই সঙ্গে জাতীয় পতাকা তৈরির নিয়মাবলিও পালটে দেওয়া হয়। হাতে তৈরি খাদির পতাকার পাশাপাশি মেশিনে বোনা পলিয়েস্টার বা সুতির পতাকা উত্তোলন করা যাবে বলে ঘোষণা করে কেন্দ্র। সেই সঙ্গে ২৪ ঘণ্টাই পতাকা ওড়ানো যাবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়।

[আরও পড়ুন: ফের উপত্যকায় জঙ্গিদের হাতে খুন কাশ্মীরি পণ্ডিত, আপেল বাগানে চলল গুলি]

CAIT-এর প্রেসিডেন্ট বিসি ভারতীয়া জানিয়েছেন, “মাত্র কুড়ি দিনে তিরিশ কোটির বেশি পতাকা তৈরি করা হয়েছে। ভারতের মানুষ প্রয়োজন পড়লে কতখানি সক্রিয় ভাবে কাজ করতে পারে, তার প্রমাণ দিয়েছে হর ঘর তেরঙ্গা কর্মসূচি। স্বাধীনতা দিবস (Independence Day) উপলক্ষে অন্তত তিন হাজারের বেশি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। সেখানে জাতীয় পতাকার ব্যবহার হয়েছে। তার ফলে কর্মসংস্থান পেয়েছেন অন্তত দশ লক্ষ মানুষ।”

Advertising
Advertising

আরও জানা গিয়েছে, পতাকা বানানোর নতুন নিয়ম তৈরি হওয়ার ফলে বাড়িতে বসেই কাজ করতে পারছেন অনেকে। খুব কম পুঁজি এবং পরিকাঠামো নিয়েও পতাকা বানানো যাচ্ছে। ফলে উপকৃত হয়েছেন সাধারণ মানুষ। পতাকা বানানোর কাজকে জীবিকা হিসাবে গ্রহণ করছেন তাঁরা। গত কয়েক বছরে গড়ে দেড়শো থেকে দু’শো কোটি টাকার ব্যবসা হয়েছে জাতীয় পতাকাকে কেন্দ্র করে। হর ঘর তেরঙ্গা কর্মসূচির ফলে এক ধাক্কায় লেনদেনের অঙ্ক পাঁচশো কোটি ছুঁয়েছে।  

[আরও পড়ুন: ভূস্বর্গে ভয়াবহ দুর্ঘটনা, গভীর খাদে সেনার বাস, মৃত্যু অন্তত ৬ জওয়ানের]

Advertisement
Next