কৃষ্ণের প্রকৃত জন্মস্থান! শাহী মসজিদে পুজোর দাবিতে যোগীকে চিঠি হিন্দু মহাসভার সদস্যর

09:30 AM Aug 17, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মথুরার শাহী ইদগা মসজিদে (Shahi Masjid Idgah) জন্মাষ্টমীর (Janmashtami 2022) পুজো করতে দেওয়া হোক। এই দাবি জানিয়ে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে (Yogi Adityanath) চিঠি পাঠালেন অখিল ভারত হিন্দু মহাসভার এক সদস্য। তাঁর দাবি শাহী ইদগা মসজিদ যেখানে তৈরি করা হয়েছে সেটিই শ্রী কৃষ্ণের (Krishna) প্রকৃত জন্মস্থান। 

Advertisement

Advertising
Advertising

জানা গিয়েছে, অখিল ভারত হিন্দু মহাসভার ওই সদস্যের নাম দীনেশ শর্মা। মুখ্যমন্ত্রীকে লেখা চিঠিতে তিনি দাবি করেছেন, যে স্থানে শাহী ইদগা মসজিদ তৈরি করা হয়েছে সেখানেই আদতে শ্রীকৃষ্ণের জন্ম হয়। তাই আসন্ন জন্মাষ্টমীতে তিনি ব্রজবাসীদের সঙ্গে মিলে মসজিদের এলাকাতেই পুজো করতে চান। মনে করা হচ্ছে, যে চিঠি তিনি পাঠিয়েছেন তা রক্ত দিয়ে লেখা। চিঠিতে দীনেশ উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীকে হিন্দু দেবতা হনুমানের অবতার হিসেবে উল্লেখ করেছেন। 

[আরও পড়ুন: ‘এটাই অমৃত মহোৎসব?’ বিলকিস বানোর ধর্ষকদের মুক্তি প্রসঙ্গে মোদিকে তোপ বিরোধীদের]

মথুরার শ্রীকৃষ্ণ মন্দিরের পাশেই অবস্থিত শাহী ইদগা মসজিদ। প্রায় ২.৩৭ একর এলাকা জুড়ে এটি তৈরি করা হয়েছে। বহুদিন ধরেই এটিকে শ্রীকৃষ্ণের প্রকৃত জন্মভূমি হিসেবে দাবি করছে স্থানীয় হিন্দু সংগঠনগুলির একাংশ। জ্ঞানবাপী মসজিদের ভিতরে ‘শিবলিঙ্গ’ থাকার দাবি ঘিরে যখন বিতর্ক শুরু হয় তখনও এই মসজিদ নিয়ে নানা দাবি ওঠে। 

কিছুদিন আগেও  অখিল ভারত হিন্দু মহাসভার সদস্য দীনেশ শর্মা শাহী ইদগা মসজিদকে শ্রী কৃষ্ণের জন্মস্থান হিসেবে দাবি করে আদালতে মামলা করেছিলেন। সেই সময় তিনি আদালতের কাছে আরজি জানিয়েছিলেন, তাঁদের মসজিদের ভিতরে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হোক। যাতে ভগবার শ্রী কৃষ্ণের পবিত্র জন্মভূমিকে গঙ্গা ও যমুনার জল দিয়ে অভিষেক করতে পারেন। এবার লাড্ডু গোপালের পূজার্চনা করতে চেয়ে সরাসরি মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে চিঠি লিখলেন তিনি। নিজের চিঠিতে দীনেশ লিখেছেন, যদি শাহী ইদগা মসজিদে পুজোর অনুমতি না দেওয়া হয় তাহলে তাঁকে মৃত্যুবরণের অনুমতি দেওয়া হোক। কারণ শ্রী কৃষ্ণের জন্মস্থানে তাঁর পুজো না করতে পারলে তাঁর জীবন বৃথা।  

[আরও পড়ুন: বুস্টারে অনীহা, আগ্রহ বাড়াতে স্টেশন, ধর্মীয় স্থানে টিকাকরণ শিবির করার নির্দেশ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর]

Advertisement
Next