মমতাকে ধন্যবাদ জানিয়ে তৃণমূল ছাড়লেন দলের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি, ফের কি জেডিইউয়ের পথে?

02:17 PM Aug 12, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিহারের রাজনীতিতে পটপরিবর্তন ঘটতেই তৃণমূল (TMC) ছাড়লেন দলের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি পবন বর্মা। শুক্রবার টুইটারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানিয়ে দল ছাড়ার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছেন তিনি। একের পর এক দুর্নীতিতে বিদ্ধ তৃণমূলের জন্য প্রবীণ নেতার দল ছাড়াটা ভালরকমের ধাক্কা।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

২০২১ সালের নভেম্বর মাসে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন প্রাক্তন এই JDU সাংসদ। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) হাত ধরেই দিল্লিতে ঘাসফুল শিবিরে রাজনীতি শুরু করেন তিনি। মমতা নিজেই তাঁকে উত্তরীয় পরিয়ে দলে স্বাগত জানান। এমনকী দলের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতির পদও দেওয়া হয় তাঁকে। পবনও তৃণমূলে যোগ দিয়ে মমতা প্রধানমন্ত্রীর পদে দেখার ইচ্ছাপ্রকাশ করেন। গোয়ায় সংগঠন বাড়ানোর ক্ষেত্রে, এবং জোট নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাও নেন তিনি। কিন্তু দলে যোগ দেওয়ার ১০ মাসের মধ্যেই মোহভঙ্গ হল তাঁর।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: ‘হর ঘর তেরঙ্গা’য় ডাক বিভাগের পোয়াবারো, ১০ দিনে বিক্রি ১ কোটিরও বেশি পতাকা]

শুক্রবার মমতাকে ট্যাগ করা এক টুইটে পবন বর্মা (Pavan K. Varma) জানিয়েছেন,”তৃণমূল থেকে আমার ইস্তফাপত্রটি গ্রহণ করুন। আপনি যেভাবে আমাকে তৃণমূলে স্বাগত জানিয়েছেন, সেজন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আমাকে যে সৌজন্য দেখিয়েছেন এবং দায়িত্ব দিয়েছেন সেজন্যও আপনাকে ধন্যবাদ। আগামী দিনেও আপনার সঙ্গে যোগাযোগ রাখব। শুভেচ্ছা রইল।” নিজের টুইটে ইস্তফার জন্য আলাদা করে কোনও কারণ উল্লেখ করেননি পবন। তবে তাঁর এই দলছাড়ার পিছনে বিহারের রাজনীতিতে পটপরিবর্তনের যোগ রয়েছে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

[আরও পড়ুন: এবার বাড়িভাড়াতেও দিতে হবে ১৮ শতাংশ GST! চাপের মুখে পড়তে পারেন ভাড়াটেরা]

বস্তুত তৃণমূল যোগ দেওয়ার আগে পবন বর্মা জেডিইউতেই ছিলেন। নীতীশ কুমারের (Nitish Kumar) সঙ্গে বিজেপির ঘনিষ্ঠতা না মানতে পারায় ২০২০ সালে প্রশান্ত কিশোরের (Prashant Kishor) সঙ্গেই দল থেকে বহিষ্কার করা হয় তাঁকে। নীতীশ আবার বিরোধী শিবিরে ফিরেছেন। জল্পনা শুরু হয়েছে, ফের হয়তো পবন জেডিইউতে ফিরবেন।

Advertisement
Next