উদ্দেশ্য ছিল নূপুর শর্মাকে খুন! উত্তরপ্রদেশে পুলিশের জালে জইশ জঙ্গি

11:11 AM Aug 13, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পয়গম্বর নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার পর থেকেই লাগাতার হুমকির মুখে পড়তে হচ্ছে নূপুর শর্মাকে। বিজেপির বহিষ্কৃত নেত্রী কখনও ধর্ষণ তো কখনও প্রাণনাশের হুমকি পেয়েছেন। এবার জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গিগোষ্ঠীর সন্ত্রাসবাদের নিশানায় চলে আসেন নূপুর। যদিও পুলিশ তৎপরতায় অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়েছে।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

যোগী আদিত্যনাথের (Yogi Adityanath) রাজ্যে পুলিশর সন্ত্রাস দমন শাখার তরফে জানানো হয়েছে, ধৃতের নাম মহম্মদ নাদিম। উত্তরপ্রদেশের সাহারানপুরের কুন্দা কালা গ্রামের বাসিন্দা সে। পাকিস্তান জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মহম্মদ (JeM) এবং তেহরিক-ই-তালিবানের (TTP) সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ ছিল নাদিমের। পুলিশি জেরায় নাদিম এও স্বীকার করেছে, নূপুর শর্মাকে খুনের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল তাকে। পাকিস্তানের জইশ গোষ্ঠীই এই ভার তুলে দিয়েছিল তার কাঁধে।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: ‘অনুব্রতর বাড়িতে ডাক্তার পাঠাতে বলেন TMC বিধায়কই’, বিস্ফোরক বোলপুর হাসপাতালের সুপার]

গোপন সূত্রে পুলিশ জানতে পারে, জইশ ও টিটিপির সঙ্গে যুক্ত জঙ্গি সাহারনপুরে রয়েছে। যে আত্মঘাতী হামলার ছক কষছে। সেই সূত্র ধরেই তদন্তে নেমে নাদিমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার মোবাইলের রেকর্ড ও মেসেজ ঘেঁটে পুলিশ আরও জানতে পারে, অস্ত্র প্রশিক্ষণের জন্য পাকিস্তানে যাওয়ার কথা ছিল তার। আইইডি তৈরির অনলাইন প্রশিক্ষণও নিয়েছিল সে। পাশাপাশি অনলাইন মেসেজিং অ্যাপ ফেসবুক মেসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ, টেলিগ্রাম ইত্যাদির মাধ্যমে দুই জঙ্গিগোষ্ঠীর সঙ্গে কথোপকথন চলত নাদিমের। বেশ কিছু অডিও চ্যাটও হাতে পেয়েছে সন্ত্রাস দমন শাখা।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

ভারতে তার সঙ্গী কে ছিল, জেরায় সেই নামও কবুল করেছে নাদিম বলে খবর। বিষয়টি আরও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এর শিকড় কতদূর পর্যন্ত বিস্তৃত, তা জানার চেষ্টা করছেন তদন্তকারীরা। উল্লেখ্য, এর আগে সীমান্ত পেরিয়ে ১১ ইঞ্চি লম্বা ছুরি হাতে পাকিস্তান থেকে এক ব্যক্তি এ দেশে ঢুকে পড়েছিলেন এই একই উদ্দেশ্য। পয়গম্বরকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করা নূপুর শর্মাকে (Nupur Sharma) প্রাণে মেরে ফেলাই ছিল তাঁর লক্ষ্য। কিন্তু রাজস্থানে তাঁকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: ‘মেয়েরা কী পরবেন, তাঁর বাবাও ঠিক করতে পারেন না!’ বিকিনি কাণ্ডে মুখ খুললেন জেভিয়ার্সের অধ্যাপিকা]

Advertisement
Next