Advertisement

সেনা অভিযানের জের, ৪ সঙ্গী-সহ মেঘালয়ে আত্মসমর্পণ উলফার শীর্ষ নেতার

10:27 AM Nov 12, 2020 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিতে জঙ্গিদের বাড়বাড়ন্ত কমাতে গত ৯ মাস ধরে মেঘালয়, অসম ও বাংলাদেশ সীমান্তে অভিযান চালাচ্ছে ভারতীয় সেনা। নির্দিষ্ট পরিকল্পনার ভিত্তিতে বিভিন্ন প্রত্যন্ত প্রান্তে হানা দিয়ে জঙ্গিদের ঘাঁটিগুলি ধ্বংস করছে। এর ফলে প্রবল চাপে পড়েছে উলফা-সহ বিভিন্ন সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের সদস্যরা। বাধ্য হয়ে অনেকেই আত্মসমর্পণ করে সমাজের মূলস্রোতে ফেরার চেষ্টা করছে। এবার সেই কাজই করল উলফার সেকেন্ড ইন কমান্ড দৃষ্টি রাজখোয়া (Drishti Rajkhowa) । বর্তমানে সে সেনা গোয়েন্দাদের হেফাজতে রয়েছে এবং খুব তাড়াতাড়ি তাকে অসমে নিয়ে আসা হচ্ছে।

Advertisement

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশে লুকিয়ে ছিল উলফা প্রধান পরেশ বড়ুয়ার অত্যন্ত ঘনিষ্ট হিসেবে পরিচিত এই জঙ্গি নেতা। কয়েক সপ্তাহ আগে সে বাংলাদেশ সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে প্রবেশ করেছে বলে খবর পায় ভারতীয় সেনা গোয়েন্দারা। এরপর তার সন্ধানে মেঘালয়ের বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালানো হচ্ছি। বুধবার বেদান্ত, ইয়াসিন অসোম, রোপজ্যোতি অসোহ ও মিঠুন অসোম নামে চার সঙ্গীকে নিয়ে ভারতীয় সেনার কাছে আত্মসমর্পণ করে বৃষ্টি রাজখোয়া।

[আরও পড়ুন: তেজস্বী যাদবের ভূয়সী প্রশংসা বিজেপি নেত্রী উমা ভারতীর গলায়, সুখ্যাতি কমল নাথেরও]

অসমের প্রশাসন আধিকারিকদের সূত্রে জানা গিয়েছে, উলফা (ULFA (I)) -এর সেকেন্ড ম্যান দৃষ্টি রাজখোয়ার নামে নিম্ন অসমের বিভিন্ন জায়গায় সন্ত্রাসবাদী হামলা চালানোর অভিযোগ রয়েছে। এই কারণে দীর্ঘদিন ধরে তাকে গ্রেপ্তার করার চেষ্টা চলছিল। কিন্তু, এতদিন সে বাংলাদেশে লুকিয়ে থাকায় তাকে ধরা সম্ভব হচ্ছিল না। তার আত্মসমর্পণের ফলে উলফা জঙ্গিরা প্রচুর চাপে পড়বে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

[আরও পড়ুন: ওড়িশায় বলানগিরে উদ্ধার একই পরিবারের ছ’জনের কম্বলে মোড়া দেহ, ঘনীভূত হচ্ছে রহস্য]

Advertisement
Next