‘সুবিচার সম্পর্কে আপনার ধারণা ভুল’, হাথরাস কাণ্ডে লকেটকে তীব্র কটাক্ষ নুসরতের

06:55 PM Oct 05, 2020 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শব্দ আর শব্দভেদী বাণের খুব বেশি তফাত নেই। একবার নিক্ষিপ্ত হলে আর ফিরিয়ে নেওয়া কোনও সুযোগ নেই। ক্ষমা চাইলেও নিস্তার নেই। তা সে অযোধ্যাপতি দশরথই হোন আর হুগলির বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়ই (Locket Chatterjee) হোন। বিজেপি সাংসদের বেফাঁস মন্তব্যের সমালোচনা করার সুযোগ ছাড়লেন না বসিরহাটের তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)।

Advertisement

শনিবার দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে কাটোয়া (Katwa) থানার দাঁইহাটের মাকালতোড়ে গিয়েছিলেন সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। কর্মসূচির শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনি। হাথরাস কাণ্ড (Hathras Rape Case) নিয়ে কথা বলতে গিয়ে বলে ফেলেন, “যোগীজির উপর ভরসা আছে উনি নিশ্চয়ই ধর্ষিতা, নির্যাতিতার পরিবারের সদস্যদের শাস্তি দেবেন মুখ্যমন্ত্রী।” অল্পক্ষণেই সোশ্যাল মিডিয়ায় দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ে এই খবর। নেটিজেনদের কটাক্ষের শিকার হতে হয় বিজেপি সাংসদকে। পরে নিজের অনিচ্ছাকৃত ভুলের জন্য ক্ষমাও চান তিনি।

[আরও পড়ুন: ‘হাথরাসের ধর্ষিতার পরিবার শাস্তি পাবে’, বেফাঁস মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন লকেট]

সেই প্রসঙ্গ তুলেই বিজেপি সাংসদকে সোশ্যাল মিডিয়ায় কটাক্ষ করেন নুসরত। ‘বিগেস্ট প্যানডেমিক বিজেপি’ (#BiggestPandemicBJP) হ্যাশট্যাগ দিয়ে লেখেন,

Advertising
Advertising

“নারী হিসেবে এক নারীকে বলছি, লকেটদি সুবিচার সম্পর্কে আপনার ধারণা ভুল। ধর্ষিতার পরিবারের শাস্তি! এখনও পর্যন্ত আমার শোনা সবচেয়ে হাস্যকর সমাধান। একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হিসেবে এই বিষয়ে আপনার মানসিকতা বিপজ্জনক।”

উল্লেখ্য, এর আগে হাথরাস গণধর্ষণের মামলার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) নীরবতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন নুসরত। শনিবার আবার তিনি টুইটারে লেখেন, “বিজেপি নেতা মানেই চূড়ান্ত কাপুরুষ! যে সংখ্যক মহিলা এবং দলিতদের নির্যাতন আপনার শাসনকালে হয়েছে, তা আর কতদিন লুকিয়ে রাখবেন নরেন্দ্র মোদিজি? আমরা আমৃত্যু লড়ে যাব।”

[আরও পড়ুন: ‘ছেলেদের কেন সংস্কার শেখানো হয় না?’ ধর্ষণ নিয়ে BJP বিধায়কের মন্তব্যে প্রবল ক্ষুব্ধ স্বরা-কীর্তি ]

Advertisement
Next