‘বিজেপি ভাবতেও পারবে না, আরও বড় নাম আসছে তৃণমূলে’, ফিরহাদের মন্তব্যে জল্পনা

01:57 PM Sep 23, 2021 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাবুল সুপ্রিয়র (Babul Supriyo) পর বিজেপিতে আরও বড়সড় ভাঙনের ইঙ্গিত দিলেন রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। তাঁর বক্তব্য, আগামী দিনে বাবুল সুপ্রিয়র থেকেও বড় নেতা বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেবেন। ফিরহাদের দাবি, ওই নেতা আগে তৃণমূলে ছিলেন না। বিজেপি (BJP) থেকেই সরাসরি শাসক শিবিরে নাম লেখাবেন তিনি।

Advertisement

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

বৃহস্পতিবার সকালে ভবানীপুর কেন্দ্রের উপনির্বাচনে (Bhabanipur By Election) মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হয়ে প্রচারে বেরিয়েছিলেন পরিবহণমন্ত্রী। সেখানেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি জানান, “আগামী দিনে আরও বড় নাম বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে আসবে। এমন একজন যোগ দেবেন, যার কথা বিজেপি ভাবতেও পারছে না। বিধায়করা তো যোগ দিচ্ছেনই। আরও অনেকে আসবেন।” ঠিক কার কথা বলছেন পরিবহণমন্ত্রী? নাম বলতে না চাইলেও, একটি ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছেন ফিরহাদ। পরিবহণমন্ত্রীর বক্তব্য, যে বড় নেতার কথা তিনি বলছেন, তিনি আগে কখনও তৃণমূলে (TMC) ছিলেন না। তিনি বিজেপিরই লোক।

[আরও পড়ুন: WB Bypolls: জোড়া নিম্নচাপের মধ্যেই নির্বাচন, পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকছে NDRF]

ফিরহাদের এই মন্তব্য রাজ্যের তিন কেন্দ্রের উপনির্বাচনের আগে বিজেপিকে চিন্তায় রাখবে বলেই মত রাজনৈতিক মহলের। কারণ, রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের বিরাট জয়ের পরই বিজেপিতে ভাঙন শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যেই গেরুয়া শিবির ছেড়ে শাসক শিবিরে নাম লিখিয়েছেন মুকুল রায় (Mukul Roy), বাবুল সুপ্রিয়র (Babul Supriyo) নেতা। বেশ কয়েকজন বিধায়কও ইতিমধ্যেই তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। আরও কয়েকজনের শাসকদলের সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছে বলে সূত্রের দাবি। সুতরাং ফিরহাদের দাবিকে একেবারে অমূলক বলে উড়িয়েও দিতে পারছে না বিজেপি। বিশেষ করে রাজ্য সভাপতি পদে নতুন মুখ আসার পর, একশ্রেণির নেতাদের মধ্যে অসন্তোষ সৃষ্টির আশঙ্কা করছে গেরুয়া শিবির। আবার জাতীয় স্তরেও তৃণমূল নেতারা অনেকের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। যা আশঙ্কা আরও বাড়াচ্ছে গেরুয়া শিবিরের।

[আরও পড়ুন: Coronavirus: দ্রুত টিকাকরণের আওতায় রাজ্যের সব কলেজ পড়ুয়া! উদ্যোগ নিচ্ছে স্বাস্থ্য দপ্তর]

দলে ভাঙনের আশঙ্কা যে রয়েছে, তা একপ্রকার স্বীকারই করে নিয়েছেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার (Sukanta Majumdar)। তাঁর বক্তব্য,”আমার মনে হয় যারা বিজেপির নীতি আদর্শ মেনে দল করেন, তাঁরা কেউ ছেড়ে যাবেন না। আমি সবাইকে আহ্বান করব, কোনও সমস্যা হলে আমাদের সঙ্গে আলোচনা করুন। একসঙ্গে বসুন। আলোচনা করলে সব সমস্যার সমাধান হয়ে যায়।”

Advertisement
Next