Advertisement

রান্নায় কালো জিরে ফোড়ন ব্যবহার করেন? ছোট্ট এই দানাগুলির উপকার জানলে অবাক হবেন

07:55 PM Jun 03, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিরামিষ পদে স্বাদ এনে দেয় কালো জিরে (Kalonji)। চপের বেসনের সঙ্গে অনায়াসে মিশে যেতে পারে। আবার একটু হালকা করে ভাজা পিঁয়াজ ও কাঁচা লঙ্কার সঙ্গে বেটে নিলে তৈরি হয়ে যায় কালো জিরে বাটা। অনেক বাঙালি বাড়িতেই সন্তানের জন্মের পর মহিলাদের তা গরম ভাতের সঙ্গে খাওয়ানো হয়। এতে নাকি প্রসব পরবর্তী ব্যথা কমে। আবার জ্বরের কারণে মুখের স্বাদ চলে গেলেও কালো জিরে বাটা খাওয়া হয়। কী এমন আছে ছোট্ট ছোট্ট এই কালো দানাগুলিতে?

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

১) অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে (Antioxidants) পরিপূর্ণ কালো জিরে। তাতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। অনেকে দাবি করেন, ক্যানসারের ক্ষেত্রেও এই ছোট্ট দানাগুলি খুবই উপকারী।

২) কালো জিরের দানা থেকে তৈরি তেল কোলেস্টোরেল (Cholesterol) কমাতে সাহায্য করে। একটি সমীক্ষার জন্য নাকি ৫৭ জনের শরীরে এর পরীক্ষা করা হয়েছিল। এক বছরে সকলের রক্তে শর্করার মাত্রা কম পাওয়া গিয়েছে বলে দাবি করা হয়।

৩) হাইপারটেনশন বা উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা হৃদরোগের সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেয়। এক্ষেত্রেও উপকারী কালো জিরে। দেহের রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া স্বাভাবিক রাখতেও সাহায্য করে। প্রদাহজনিত সমস্যার সমাধান করে।

[আরও পড়ুন: স্রেফ ঘুমালেই বাড়বে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা, জানুন কতক্ষণ ঘুমের প্রয়োজন ]

৪) শোনা যায়, স্মরণ শক্তির ক্ষেত্রেও কালো জিরে খুবই উপকারী। অতিমারীর এই সময়ে দুশ্চিন্তা, আশঙ্কায় ভুগছেন অনেকে তা কমাতে সাহায্য করে ছোট্ট এই দানাগুলি।

৫) দেহের ক্ষতিকারক ব্যাক্টিরিয়ার শত্রু কালো জিরে। উপকারী কোষ এবং কলাগুলির বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে।

৬) ব্যথা, বেদনার উপশমের জন্যও কালো জিরের ব্যবহার করা হয়। অন্ত্রের জীবাণুকে নাশ করে এই বীজ।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

তবে হ্যাঁ, কালো জিরে খাওয়ার ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম মানা প্রয়োজন। এটি নিয়মিত এবং পরিমিত হারে খেতে হয়। অতিরিক্ত সেবনে হিতে বিপরীত হতে পারে। গর্ভাবস্থায় কালো জিরে তেল খেতে বারণ করা হয়। আবার অনেকেই কালো জিরে হজম করতে পারেন না। পুরনো কালো জিরে তেল স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকারক। তাই ভেবে চিন্তেই কালো জিরে বা তা থেকে তৈরি তেলের ব্যবহার করা উচিত বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। যাবতীয় তথ্য সংগৃহীত। তাই নিয়ম মানার আগে বিশেষজ্ঞর সঙ্গে অবশ্যই কথা বলে নেবেন।

[আরও পড়ুন: করোনার বিরুদ্ধে লড়তে মুঠো-মুঠো মাল্টিভিটামিন নয়, ডায়েটে রাখুন এই খাবারগুলি]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next