বোসন কণা আবিষ্কার করে পেয়েছিলেন বিশ্বের স্বীকৃতি, গুগল ডুডলে শ্রদ্ধা বিজ্ঞানী সত্যেন্দ্রনাথ বসুকে

02:46 PM Jun 04, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্ববিশ্রুত ভারতীয় পদার্থবিজ্ঞানী এবং গণিতবিদ সত্যেন্দ্রনাথ বসুকে (Satyendra Nath Bose) ডুডলের মাধ্যমে সম্মান জানাল গুগল (Google)। আজ থেকে ৯৮ বছর আগে, ১৯২৪ সালে আজকের দিনেই তিনি তাঁর কোয়ান্টাম ফর্মুলেশনগুলি পাঠিয়েছিলেন অ্যালবার্ট আইস্টাইনের কাছে। নোবেলজয়ী বিজ্ঞানী দ্রুতই সেগুলিকে কোয়ান্টাম মেকানিক্সের যুগান্তকারী আবিষ্কার বলে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন। সেই মুহূর্তকে স্মরণে রেখেই গুগলের এই শ্রদ্ধা নিবেদন।

Advertisement

বিজ্ঞান জগতে সত্যেন্দ্রনাথের সবচেয়ে বিখ্যাত কীর্তি হল অ্যালবার্ট আইনস্টাইনের সঙ্গে বোস-আইনস্টাইন স্ট্যাটিক্টিক্স। আইনস্টাইনকে তিনি ‘গুরু’ মেনেছিলেন। ১৮৯৪ সালের ১ জানুয়ারি জন্ম তাঁর। প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে স্নাতক হওয়ার পরে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে ফলিত গণিতে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেছিলেন তিনি। পরে ১৯১৭ সালে শুরু হয়ে যায় অধ্যাপনার কাজ। কিন্তু গত শতকের দুইয়ের দশকে কোয়ান্টাম মেকানিক্সে গবেষণার মাধ্যমে সকলের নজর কাড়েন তিনি। রয়্যাল সোসাইটির ফেলো সত্যেন্দ্রনাথ ১৯৫৪ সালে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান পদ্মবিভূষণে সম্মানিত হন।

[আরও পড়ুন: কেকে’র মৃত্যুর পরেও বাতিল নয় কনসার্ট, জুলাইতে কলকাতায় আসছেন সোনু নিগম]

বোসন কণা সম্পর্কে প্রথম ধারণা বিশ্বকে দিয়েছিলেন সত্যেন্দ্রনাথই। ১৯২৪ সালে আইনস্টাইনকে পাঠানো ফর্মুলেশনগুলিতেই সেই ইঙ্গিত ছিল। পরবর্তী সময়ে ১৯৬৪ সালে এই কণা সম্পর্কে গবেষণা করেন পিটার হিগজ। তখন এই কণার নাম হয় হিগস বোসন কণা। অনেক পরে ২০১২ সালে আবিষ্কৃত হয় এই কণাটি। প্রমাণিত হয় বাঙালি বিজ্ঞানীর ধারণায় কোনও ভুল ছিল না।

Advertising
Advertising

বিজ্ঞানের নানা শাখায় সত্যেন্দ্রনাথের আগ্রহ ছিল। পদার্থবিদ্যা, অঙ্ক, রসায়ন, জীববিদ্যার পাশাপাশি শিল্পসাহিত্য, সংগীত, দর্শনেও তাঁর অধ্যবসায় ছিল অবিস্মরণীয়। আক্ষরিক অর্থেই বহুমুখী প্রতিভাবান এই মানুষটি সার্বভৌম ভারতের বহু গবেষণা ও উন্নয়নমূলক কমিটির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। ১৯৭৪ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি ৮০ বছর বয়সে প্রয়াত হন সত্যেন্দ্রনাথ।

[আরও পড়ুন: Chaitali Lahiri: ‘বরটা বড়ই বোকা…’, কেকে বিতর্ক নিয়ে এবার কবিতা লিখলেন রূপঙ্করের স্ত্রী]

Advertisement
Next