Advertisement

টি-২০ বিশ্বকাপ খেলতে ভারতে আসার ভিসা পাবেন পাক ক্রিকেটাররা? কী জানাল বোর্ড?

05:36 PM Apr 17, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চলতি বছরের শেষেই ভারতের (India) মাটিতে আয়োজিত হতে চলেছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ (T20 World Cup)। করোনা চিন্তা বাড়ালেও সুষ্ঠুভাবে টুর্নামেন্ট আয়োজনের ব্যাপারে বদ্ধপরিকর ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (BCCI)। আর এই বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে কোনও অসুবিধা হবে না পাক ক্রিকেটারদের। ভারতে আসার ভিসা পেয়ে যাবে পাক ক্রিকেট দল। আর একথা ভারতীয় বোর্ডের অ্যাপেক্স কাউন্সিলের বৈঠকে নাকি জানিয়েছেন খোদ বোর্ড সচিব জয় শাহ (Jay Shah)। সংবাদসংস্থা পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বোর্ড আধিকারিক এমনটাই জানিয়েছেন।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

সীমান্তে জঙ্গি অনুপ্রবেশ থেকে শুরু করে সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন, এদেশে একাধিক সন্ত্রাসবাদী হামলা, প্রত্যেক ক্ষেত্রেই যুক্ত পাকিস্তানের নাম। আর সেকারণেই ভারত-পাকিস্তান দু’দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি বহুদিন ধরেই উত্তপ্ত। দীর্ঘদিন দুই দেশ দ্বিপাক্ষিক কোনও সিরিজেও অংশ নেয়নি। এই পরিস্থিতিতে বিশ্বকাপ খেলতে আদৌ ভারতে আসার ভিসা কি পাবেন পাক ক্রিকেটাররা? এমন প্রশ্নই উঠতে শুরু করে দেয়। খোদ পিসিবিও এই প্রসঙ্গে বিবৃতি দেয়। তবে যাবতীয় বিতর্কের অবসান অবশ্য ঘটে গেল জয় শাহের ওই বক্তব্যেই। সংবাদসংস্থা পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই বোর্ড কর্তা জানান, “পাকিস্তানের ক্রিকেট দলের ভিসা পাওয়া নিয়ে কোনও সমস্যা আর নেই। তবে পাক ক্রিকেটভক্তরা এদেশে এসে ম্যাচ দেখতে পারবেন কি না, সেটা এখনও ঠিক হয়নি। দ্রুতই এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে আইসিসিকে দেওয়া কথামতো সমস্ত কিছুরই আয়োজন করা হবে। অ্যাপেক্স কাউন্সিলের বৈঠকে একথা জানিয়েছেন খোদ বিসিসিআই সচিব জয় শাহ।”

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: আরসিবি ম্যাচের আগে স্পিন জটে বিদ্ধ KKR, বাদ পড়তে পারেন ভাজ্জি-শাকিব]

এদিকে, অ্যাপেক্স কাউন্সিলের বৈঠকে চলতি বছরের শেষে টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপের ভেন্যু নিয়েও আলোচনা হয়েছে। ইতিমধ্যে দেশে দেখা দিয়েছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। মারণ ভাইরাসটি মারাত্মক আকার ধারণ করলেও বিসিসিআই আশাবাদী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ভারতেই হবে। মোট নটি মাঠে বিশ্বকাপ আয়োজন করার ভাবনা রয়েছে বোর্ডের। দেশের যে সমস্ত শহরে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর রয়েছে, সেখানেই বিশ্বকাপের ম্যাচ আয়োজন হবে বলে খবর। তবে সবই নির্ভর করছে দেশের করোনা পরিস্থিতির উপর। সেপ্টেম্বর মাসেও করোনা সংক্রমণ এইভাবেই বাড়তে থাকলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভবিষ্যত কী হবে? সেই সম্পর্কে কিছু বলা যাচ্ছে না।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: বোর্ডের বার্ষিক চুক্তিতে জাদেজা কেন A গ্রেডে? বিসিসিআইকে তুলোধোনা ভনের]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next