Advertisement

আইপিএলে বেটিংয়ের ছায়া! আহমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজির বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ বিসিসিআইয়ের

01:28 PM Dec 05, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের আইপিএলের (IPL) সঙ্গে জড়িয়ে গেল বেটিং বিতর্ক। আইপিএলের নয়া আহমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকানা যে সংস্থার হাতে গিয়েছে সেই সিভিসি ক্যাপিটাল (CVC Capital) একাধিক বেটিং সংস্থার সঙ্গে যুক্ত। একাধিক বেটিং সংস্থায় বিপুল বিনিয়োগ রয়েছে তাদের। বেশ কিছুদিন ধরেই এই অভিযোগ নিয়ে গুঞ্জন চলছিল ভারতীয় ক্রিকেট মহলে। শেষমেশ বিসিসিআই সিভিসি ক্যাপিটালের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দিল।

Advertisement

পাঁচ হাজার ৬২৫ কোটি টাকার বিনিময়ে আইপিএলের নতুন আহমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকানা পেয়েছে সিভিসি ক্যাপিটাল। সিভিসির মোট সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ৯ লক্ষ ৩৭ হাজার কোটি টাকা। ১৯৮১ সালে তৈরি হয় এই ঋণদানকারী সংস্থা। ইউরোপের লুক্সেমবার্গের সংস্থা এটি। এখন তাদের প্রধান দপ্তর লন্ডনে। বিশ্বের ৭৩টি সংস্থায় বিনিয়োগ রয়েছে সিভিসির। এর আগেও একাধিক খেলার সঙ্গে যুক্ত ছিল তারা। এর আগে ফর্মুলা ওয়ান এবং ভলিবলে বিনিয়োগ করেছে সংস্থাটি। এমনকী, লা লিগার একটি ক্লাবেও এই সংস্থার মালিকানা আছে বলে সূত্রের দাবি। প্রাক্তন আইপিএল কমিশনার ললিত মোদির (Lalit Modi) দাবি, এই সিভিসি ক্যাপিটাল ইউরোপের একাধিক বেটিং সংস্থায় বিনিয়োগ করে রেখেছে। তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, সরাসরি বেটিংয়ের সঙ্গে যুক্ত একটি সংস্থা কীভাবে আইপিএল দলের মালিকানা পেল।

[আরও পড়ুন: ‘৪-৫ বছরের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ’, বিশ্বকাপে ভারতের ভরাডুবি নিয়ে হতাশ সৌরভ]

তারপরই বিতর্ক শুরু হয়ে যায় ভারতীয় ক্রিকেট মহলে। সিভিসি ক্যাপিটাল কীভাবে ফ্র্যাঞ্চাইজি কেনার সুযোগ পেল? প্রশ্ন তোলা শুরু করেন অনেকে। শুরু হয় বিতর্ক। সেই বিতর্কের অবসান ঘটাতে শনিবার কলকাতায় বিসিসিআইয়ের সাধারণ সভায় এ নিয়ে আলোচনা করেছেন শীর্ষকর্তারা। বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভা শেষে সচিব জয় শাহ জানিয়েছেন,”আমরা এ নিয়ে একটি কমিটি গঠন করেছি। সেই কমিটিই এ বিষয়ে তদন্ত করছে।”

[আরও পড়ুন: India vs New Zealand: মুম্বই টেস্টে চালকের আসনে ভারত, অ্যাজাজের রেকর্ডের পরও চাপে কিউয়িরা]

যদিও বোর্ডের অন্দরের সূত্রের খবর, এই কমিটি গঠন নেহাতই আনুষ্ঠানিকতা। সিভিসি ক্যাপিটাল দল কেনায় বিসিসিআইয়ের কোনও নিয়ম লঙ্ঘিত হয়নি। আহেমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজিকে দ্রুত ক্লিনচিট দিয়ে দেওয়া হবে। সেই সঙ্গে ঘোষণা করা হবে আইপিএলের আগামী মরশুমের নিলামের দিনক্ষণও। সূত্রের খবর, প্রথমে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে নিলাম শুরুর কথা থাকলেও, তা হতে পারে জানুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহে।

Advertisement
Next