Advertisement

আশঙ্কাই সত্যি হল, এবার করোনায় আক্রান্ত বিশ্বের এক নম্বর টেনিসতারকা নোভাক জকোভিচ

08:07 PM Jun 23, 2020 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গ্রিগর দিমিত্রভ করোনা পজিটিভ হয়েছেন। এ খবর সামনে আসার পর থেকেই আশঙ্কার পারদ চড়েছিল। শেষমেশ সেই আতঙ্কাই সত্যি হল। মারণ ভাইরাস এবার থাবা বসাল নোভাক জকোভিচের শরীরে। মহামারীকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেওয়ারই খেসারত দিতে হল সার্বিয়ান তারকাকে।

Advertisement

এদিন জকোভিচ জানান, বেলগ্রেডে পৌঁছে তিনি করোনা পরীক্ষা করান। তাঁর ও তাঁর স্ত্রী জেলেনার রিপোর্ট পটিজিভ এসেছে। তবে সন্তানদের শরীরে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়নি বলেই জানান তিনি। আপাতত ১৪ দিন সেলফ আইসোলেশনে থাকবেন তারকা। আর পাঁচদিন পর ফের টেস্ট করবেন।

[আরও পড়ুন: ছেলেকে ‘কালো’ বলে কটাক্ষ নেটিজেনের, যোগ্য জবাব দিলেন শিখর ধাওয়ানের স্ত্রী]

এটিপি-ডব্লিউটিএ এবং গ্র্যান্ড স্লাম শুরুর আগে ক্রোয়েশিয়ায় একটি প্রদর্শনী টুর্নামেন্ট আদ্রিয়া ট্যুরের আয়োজন করেছিলেন বিশ্বের এক নম্বর জকোভিচ। করোনা আবহেও যেখানে সোশ্যাল ডিসটেন্সিংয়ের তোয়াক্কা করা হয়নি। গ্যালারি ভরতি দর্শকদের মাঝেই কোর্টে নেমেছেন খেলোয়াড়রা। এমনকী ম্যাচ শেষে করমর্দনও করেছেন। এককথায়, করোনাকে (coronavirus) বুড়ো আঙুল দেখিয়ে একেবারে স্বাভাবিক ছন্দে টুর্নামেন্ট ফেরাতে চেয়েছিলেন জোকার। আর সেখানেই অংশ নিয়েছিলেন দিমিত্রভ। গত শনিবার তিনি বোরনা কোরিচের বিরুদ্ধে খেলেনও। তার পরের দিনই দিমিত্রভ জানান তিনি করোনায় আক্রান্ত। গতকালই আবার জানা যায় বোরনাও করোনা পজিটিভ হয়েছেন। এবার জকোভিচের কোভিড পরীক্ষার রিপোর্টও একই কথা বলছে। জানা গিয়েছে, ম্যাচের পর তিনি বন্ধুদের সঙ্গে নাইটক্লাবে পার্টিও করেছিলেন।

এমন পরিস্থিতিতে এভাবে টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য জোকারকে একহাত নিয়েছিলেন টেনিসপ্রেমীরা। তাঁর দায়িত্বজ্ঞানহীনতাই বহু মানুষকে বিপদের মুখে ঠেলে দিল বলে অভিযোগ তোলেন তাঁরা। দিমিত্রভের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসার পর টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছিলেন সার্বিয়ান তারকা। তবে টেনিসপ্রেমীদের অভিযোগ যে নিছক মিথ্যে ছিল না, তা মঙ্গলবারই স্পষ্ট হয়ে গেল।

[আরও পড়ুন: কোটি কোটি টাকার চুক্তি, চাইলেও সহজে চিনা সংস্থাগুলির সঙ্গ ছাড়তে পারবে না BCCI!]

The post আশঙ্কাই সত্যি হল, এবার করোনায় আক্রান্ত বিশ্বের এক নম্বর টেনিসতারকা নোভাক জকোভিচ appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next