Advertisement

মারণ করোনায় প্রাণ হারালেন ভারতের সোনাজয়ী প্রাক্তন অলিম্পিয়ান

09:50 PM May 08, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মারণ করোনায় (Corona Pandemic) বিধ্বস্ত গোটা দেশ। প্রতিদিনই রেকর্ড গড়ছে দৈনন্দিন আক্রান্ত এবং মৃত্যুর সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে কোভিড প্রাণ কাড়ল ১৯৮০ সালে মস্কো অলিম্পিকে (Moscow Olympic) সোনাজয়ী হকি দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য রবিন্দর পাল সিং। শনিবার সকালে লখনউয়ের হাসপাতালে প্রাণ হারালেন তিনি। রবিন্দরের মৃত্যুতে ইতিমধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে ভারতীয় ক্রীড়ামহলে।

Advertisement

জানা গিয়েছে, সম্প্রতি করোনা বাসা বেঁধেছিল ৬০ বছর বয়সি রবিন্দর পাল সিংয়ের শরীরে। কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসায় লখনউয়ের বিবেকানন্দ হাসপাতালে ভরতি করা হয়। পরিবার সূত্রে খবর, পরবর্তীতে করোনা থেকে সেরেও উঠেছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার তাঁকে নন-কোভিড ওয়ার্ডেও নিয়ে আসা হয়েছিল। এমনকী রিপোর্টও নেগেটিভ আসে। কিন্তু শুক্রবার আচমকাই গুরুতরভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরবর্তীতে তাঁকে ভেন্টিলেশনে রাখাও হয়। তবুও শেষরক্ষা হয়নি। শনিবার সকালেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

[আরও পড়ুন: বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল ও টেস্ট সিরিজের জন্য ঘোষিত ভারতীয় দল, বাদ হার্দিক-ভুবি]

সীতাপুরে জন্মগ্রহণ করা রবিন্দর পাল সিং, একসময় ভারতের জাতীয় হকি দলের গুরুত্বূপূর্ণ সদস্য ছিলেন। ১৯৭৯ জুনিয়র ওয়ার্ল্ড কাপে খেলেছিলেন। তারপরই জাতীয় দলে ডাক পান মিডফিল্ডে খেলা রবিন্দর। এরপর ১৯৮০ সালে জাতীয় দলের হয়ে মস্কো অলিম্পিকে খেলতে যান। সেখানে অসাধারণ পারফরম্যান্সও করেন। শেষপর্যন্ত মস্কোতে সোনা জেতে ভারতীয় দলও। পরে ১৮৪ সালের লস অ্যাঞ্জেলস অলিম্পিকেও জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছিলেন। বলা যেতে পারে, এই ১৯৭৯-৮৪ সাল পর্যন্ত স্বপ্নের ফর্মে ছিলেন রবিন্দর। ভারতের হয়ে দুটি অলিম্পিক জয়ের পাশাপাশি করাচিতে অনুষ্ঠিত চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি (১৯৮০, ১৯৮৩), ১৯৮৩ সালে হংকংয়ে দশ দলের সিলভার জুবিলি কাপ, ওয়ার্ল্ড কাপ (১৯৮২) এবং এশিয়া কাপেও (১৯৮২) অংশ নিয়েছিলেন। এহেন খেলোয়াড়ের মৃত্যুতে কার্যত শোকের ছায়া নেমে এসেছে ভারতীয় ক্রীড়াজগতে। শোকপ্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজু, হকি দলের প্রাক্তন অধিনায়ক ধনরাজ পিল্লাই-সহ প্রাক্তন, বর্তমান বহু খেলোয়াড়ই।

 

[আরও পড়ুন: কোভিড যুদ্ধে শামিল কলকাতার ফুটবল ক্লাবগুলি, বিনামূল্যে করা হল টিকাকরণের ব্যবস্থা]

এদিকে, সকালের এই খবরের পর রাতেও এল আরেক দুঃসংবাদ। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন মহারাজ কৃষ্ণ কৌশিক। তিনিও ১৯৮০ সালের মস্কো অলিম্পিকে সোনাজয়ী ভারতীয় হকি দলের সদস্য ছিলেন। শুধু সদস্য বলা ভুল, স্পেনের বিরুদ্ধে জয়সূচক গোল করে ভারতকে সোনাও জিতিয়েছিলেন। কিন্তু জীবনযুদ্ধে হেরে গেলেন কৌশিক। শনিবার বিকেলে প্রয়াত হন। বয়স হয়েছিল ৬৬ বছর। রেখে গেলেন স্ত্রী এবং ছেলেকে। গত ১৭ এপ্রিল কোভিড ধরা পড়েছিল তাঁর। স্থানীয় নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয় কৌশিককে। চিকিৎসায় সাড়াও দিচ্ছিলেন। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে পরিস্থিতি খারাপ হতে থাকে। শনিবার সকালেই তাঁকে ভেন্টিলেটরে দেওয়া হয়। সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মহিলা এবং পুরুষ— ভারতের দুই জাতীয় দলকেই একসময় কোচিং করিয়েছেন তিনি। পুরুষ দল তাঁর কোচিংয়েই ১৯৯৮ এশিয়াডে সোনা জেতে। মহিলা দল ২০০৬ এশিয়াডে ব্রোঞ্জ জিতেছিল। ১৯৯৮ সালে তাঁকে অর্জুন পুরস্কারে ভূষিত করা হয়। তাঁর মৃত্যুতেও শোকপ্রকাশ করেছে ক্রীড়ামহল।

 

Advertisement
Next