Advertisement

জার্মান কোচকে ছাঁটাই পারফরম্যান্সে প্রভাব ফেলবে? একান্ত সাক্ষাৎকারে মুখ খুললেন সোনাজয়ী নীরজ

10:45 PM Sep 15, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সুলয়া সিংহ ও মণিশংকর চৌধুরী: তিনি দেশের সোনার ছেলে। ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডে একমাত্র ভারতীয় হিসেবে অলিম্পিকের মঞ্চে সোনা জিতে স্বপ্নপূরণ করেছেন কিংবদন্তি মিলখা সিংয়ের। আর তারপরই রাতারাতি গোটা দেশের সেনসেশন নীরজ চোপড়া (Neeraj Chopra)। তরুণীদের হার্টথ্রব তিনি। টোকিওতে সোনা জয়ের পর প্রথমবার কলকাতায় হাজির নীজ্জু। এসেই শুনেছেন দুর্গাপুজোর কথা। খেয়েছেন মিষ্টিও। তারকা জ্যাভলিন থ্রোয়ারকে কাছে পেয়ে উচ্ছ্বসিত অনুরাগীরাও।

Advertisement

মঙ্গলবার সন্ধেতেই কলকাতায় পা রাখেন নীরজ। আর এদিন যোগ দেন একাধিক অনুষ্ঠানে। একটি সংস্থার আয়োজিত টক শোয়ে এসে মনে করান তাঁর সেই সোনার মুহূর্তটি। যখন টোকিওর ফাইনালে দ্বিতীয়বার জ্যাভলিন থ্রো করেই আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে শূন্যে ছুঁড়ে দিয়েছিলেন দু’হাত। বুঝে গিয়েছিলেন, পাল্লা তাঁর দিকেই ভারী। জানালেন, অক্লান্ত পরিশ্রম, নিষ্ঠা আর ধৈর্যশক্তিতে ভর দিয়েই আজ সাফল্যের শিখরে পৌঁছতে পেরেছেন তিনি।

কলকাতার স্বভূমিতে এক টক শোয়ে নীরজ

[আরও পড়ুন: দ্রুত ঘর গোছাচ্ছে SC East Bengal, তৃতীয় বিদেশি হিসেবে লাল-হলুদে এলেন ক্রোয়েশিয়ান ডিফেন্ডার]

সত্যিই তো, পানিপথ থেকে টোকিও – নীরজের সফরটা নেহাত সহজ ছিল না। পানিপথের সেদিনের ছোট্ট ছেলেটা ছিল বেশ গোলগাল। বন্ধুরা তাই ‘সরপঞ্চ’ বলে খুব খেপাত। চেহারা নিয়ে হাসাহাসিও করত আরও অনেকেই। একদিন তো সেই ঠাট্টা সইতে না পেরে কাঁদতে কাঁদতে বাড়ি ফিরেছিল ছোট্ট নীজ্জু। সেদিন শুধু সে একা নয়, তার পরিবারও একখানা প্রতিজ্ঞা করেছিল। ছেলেটাকে এমন জায়গায় নিয়ে যেতে হবে, যাতে তার সাফল্যই সব ব্যঙ্গের জবাব হয়ে ওঠে। সেই শুরু, বাকিটা ইতিহাস। ২৩ বছরের নীরজ আজ সত্যি সত্যিই গোটা দেশের সরপঞ্চ। এনডর্সমেন্টের নিরিখে আজ ভারতীয় ক্রিকেট অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে ছুঁয়ে ফেলেছেন তিনি। এভাবেই সকলকে পাশে চাইছেন নীরজ, যাতে জ্যাভলিনের মতো খেলাও আরও বেশি জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।

সম্প্রতি টোকিও অলিম্পিকে (Tokyo Olympics 2020) নীরজের জার্মান কোচ ইউয়ি হোনকে সম্প্রতি সাসপেন্ড করেছে ভারতীয় অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন। ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট আদিল সুমারিওয়ালা বলেন, “ইউয়ি হোনের পারফরম্যান্সে আমরা খুশি নই। তাই তাঁর জায়গায় নয়া কোচ নিযুক্ত করা হবে।” এ বিষয়ে সরাসরি অবশ্য কোনও বিতর্কে গেলেন না নীরজ। বলছেন, “বার্ডোনির কোচিংয়ে আমি গত দু’বছর ধরে খেলছি। উনি তো ভারতেই রয়েছেন। তাই আমার কোনও সমস্যা হবে না।”

নীরজের জার্মান কোচ

[আরও পড়ুন: IPL 2021: আইপিএলের দ্বিতীয় পর্বের শুরু থেকেই স্টেডিয়ামে ফিরছে দর্শক, ঘোষণা আয়োজকদের]

টোকিও অলিম্পিকে সোনা জয়ের পর জীবন বদলে গিয়েছে অনেকখানি। তবে খ্যাতি-প্রতিপত্তি নীরজের মাথা ঘুরিয়ে দিতে ব্যর্থ। শান্ত, নম্র স্বভাবের ছেলেটির পাখির চোখ এখন ২০২২ বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপ।

Advertisement
Next