Advertisement

দলের দায়িত্ব সামলে জননেতার ভূমিকায় অভিষেক, বজ্রপাতে নিহত পরিবারগুলিকে অর্থসাহায্য

08:21 PM Jun 10, 2021 |
Advertisement
Advertisement

দিব্যেন্দু মজুমদার ও সুব্রত যশ: দায়িত্বপূর্ণ পদের অধিকারী থেকে জননেতা তিনি। মানুষের পাশে, মানুষের সঙ্গে রয়েছেন সর্বক্ষণ। এভাবেই রাজনীতির ময়দান পেরিয়ে আমজনতার দরবারে নিজেকে তুলে ধরেছেন তৃণমূলের (TMC) সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। সম্প্রতি তিনি যেভাবে জেলা সফর করছেন, তাতে তা স্পষ্ট।বৃহস্পতিবার হুগলিতে বজ্রাঘাতে মৃতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করে তাঁদের হাতে আর্থিক সাহায্য তুলে দিলেন অভিষেক। পাশাপাশি দলের পক্ষ থেকে মৃতদের পরিবারের পাশে সবরকমভাবে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

গত সোমবার বিকেলে প্রাকৃতিক দুর্যোগে হুগলির বিভিন্ন জায়গায় বাজ পড়ে ১১ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়। এই দুঃসংবাদ জানামাত্র অভিষেক সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, মৃতদের সকলের বাড়িতে যাবেন। সেইমতো সফরসূচিও স্থির করে ফেলেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় হুগলির (Hooghly) মাহেশ্বরপুরে হেলিকপ্টারে নামেন। তারপর পোলবার নবগ্রাম রায়পাড়ায় বজ্রাঘাতে মৃত কিরণ রায়ের বাড়ি যান। সেখানে মৃতের স্বামী ও তার দুই শিশু সন্তানদের সঙ্গে দেখা করেন। মৃতের স্বামী সমীর রায় অভিষেকের কাছে করজোড়ে আবেদন জানান তার ছোট দু’টি মেয়ের পড়াশোনা ও বড় করার জন্য তাঁর চাকরির প্রয়োজন। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বিষয়টি দেখবেন বলে জানান। পরিবারের হাতে আর্থিক সাহায্য তুলে দেন অভিষেক নিজে। তবে দলের পক্ষ থেকে ছোট মেয়েদের পড়াশোনার সমস্ত দায়িত্ব নেওয়া হবে বলে আশ্বস্ত করেছেন অভিষেক। দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে ছিলেন বিধায়ক তপন দাশগুপ্ত ও অসীমা পাত্র।

[আরও পড়ুন: করোনা পরিস্থিতিতে ভাঁড়ারে টান! চরম সংকটের মুখে বেলুড়ের আশ্রমের অনাথ খুদেরা]

পোলবা থেকে মহানাদে বজ্রাঘাতে মৃত হারুণ রসিদের বাড়ি যান। সেখানে মৃতের পরিবারের হাতে আর্থিক অনুদান তুলে দেওয়ার পর হেলিকপ্টারে করে তারকেশ্বর যান তিনি। সেখানে অভিষেক তারকেশ্বর রাজবাড়ি মাঠে শ্রমমন্ত্রী বেচারাম মান্না, বিধায়ক করবী মান্নার উপস্থিতিতে সিঙ্গুর, হরিপাল ও তারকেশ্বরে বাজ পড়ে মৃত ছয় পরিবারের সদস্যদের হাতে আর্থিক সাহায্য তুলে দেন।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: মালদহে আটক ‘সন্দেহভাজন’ চিনা নাগরিক, উদ্ধার প্রচুর নগদ-সহ অত্যাধুনিক বৈদ্যুতিক যন্ত্র]

এরপর অভিষেক খানাকুলের রামমোহন কলেজ মাঠে নেমে হেলিপ্যাডের পাশেই এক অস্থায়ী ছাউনিতে খানাকুল গোঘাট ও পুরশুড়া থানা এলাকায় বজ্রাঘাতে মৃত পাঁচ জনের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন। তাঁদের সমস্যার কথা শোনেন। অভিষেক জানান, ”যাঁদের বজ্রাঘাতে মৃত্যু হয়েছে, তাঁদের পাশে সর্বদা দলীয় কর্মীরা থাকবেন।” সরকারি সাহায্য তো রয়েছেই, দলের পক্ষ থেকে তিনি নিজে হাতে কিছু আর্থিক অনুদান তুলে দেন মৃতদের পরিবারের হাতে। অভিষেকের কথায়, ”বর্তমান সরকার যা বলে, তাই করে। মানুষের বিপদের দিনে তৃণমূল সরকার রয়েছে তা নিশ্চয় মানুষ বুঝতে পারবেন।”

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next