কোভিড মোকাবিলায় তৎপরতা, শপথ নিয়েই কাজে হাত দিলেন তারকা বিধায়ক রাজ

07:36 PM May 08, 2021 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চিত্রপরিচালকের পেশা থেকে কিছুদিন বিরতি নিয়ে ঝাঁপিয়েছিলেন জনতার উন্নয়নের কাজে। ভোটে লড়াই করে জনপ্রতিনিধিও হয়েছেন। এবার কাজের পালা। সিনেমাই হোক কিংবা জনপরিষেবা – সময়ের কাজ সময়েই করতে হয়, তা বেশ বুঝেছেন সদ্য শপথ নেওয়া তৃণমূলের তারকা বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী (Raj Chakraborty)। তাই বৃহস্পতিবার বিধানসভায় শপথ সেরেই কাজে হাত লাগালেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশমতো প্রথম কাজ হিসেবে কোভিড মোকাবিলায় পদক্ষেপ নিলেন রাজ। বারাকপুরের (Barrackpore) স্টেডিয়ামের খোলনলচে পালটে একটা মিনি কোভিড হাসপাতালে পরিণত করার কাজ শুরু করলেন। স্থানীয় তারকা বিধায়কের এই উদ্যোগকে স্বভাবতই স্বাগত জানিয়েছেন বারাকপুরবাসী।

Advertisement

এই মুহূর্তে উত্তর ২৪ পরগনার করোনা (Coronavirus) পরিস্থিতি সবচেয়ে উদ্বেগের। দৈনিক সংক্রমণে কলকাতাকেও পিছনে ফেলে দিয়েছে এই জেলা। বারাকপুর, বারাসতে হু হু করে বেড়ে চলেছে করোনা রোগীর সংখ্যা। এভাবে লাফিয়ে বাড়তে থাকা সংক্রমণ রুখে দেওয়াই নতুন সরকারের সর্বপ্রথম কাজ, একথা আগেই ঘোষণা করেছিলেন মু্খ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। শপথ অনুষ্ঠানের দিনও এই কাজেই জোর দিয়েছেন তিনি। তাই প্রথম দিন প্রশাসনিক কর্তাদের নিয়ে বৈঠকের পর রাজ্যে সংক্রমণের শৃঙ্খল ভাঙতে কার্যত আংশিক লকডাউনের পথে হেঁটেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এই অবস্থায় তাঁর টিম অর্থাৎ তৃণমূলের জয়ী প্রার্থীরাও সেই কাজকেই অগ্রাধিকার দিয়েছেন। বারাকপুরের তারকা বিধায়ক তথা টলিউডের চিত্র পরিচালক রাজ চক্রবর্তী তাই কাজে নেমে করোনার চিকিৎসার দিকে নজর দিলেন।

[আরও পড়ুন: ‘চোর, দুশ্চরিত্রদের জন্যই এই হাল’, রাজ্য নেতাদের বিরুদ্ধে দিল্লিতে নালিশ করবেন তথাগত]

সূত্রের খবর, এদিন বারাকপুর স্পোর্টস ফোরামের স্টেডিয়ামকে সেমি কোভিড হাসপাতালে রূপান্তরিত করা যায় কিনা, তা নিয়ে আলোচনায় বসেন রাজ চক্রবর্তী। বৈঠকে যোগ দেন প্রশাসনের বেশ কয়েকজন আধিকারিক, এবং বারাকপুর পুরসভার পুরপ্রশাসক। বিএন বোস হাসপাতালে সুপারিন্টেন্ডেন্টের সঙ্গে চলে বৈঠক। হাজির ছিলেন বারাকপুরের পুলিশ কমিশনারও। আলোচনায় সিদ্ধান্ত হয়, স্টেডিয়ামকে মিনি কোভিড হাসপাতালে রূপান্তরিত করা হবে। সেফ হোমের জন্য আগে এখানে কুড়িটি বেড বরাদ্দ ছিল। এবার সেখানে আরও ১৫০ টি বেড বাড়িয়ে হাসপাতাল তৈরির কাজ দ্রুত শুরু হবে বলে জানান রাজ। হাসপাতালে অক্সিজেন হাব রাখার পরিকল্পনাও রয়েছে। শিগগিরই উত্তর ২৪ পরগনার কোভিড আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য এই স্টেডিয়ামের দরজা খুলে যাবে।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: আংশিক লকডাউনে কমেছে যাত্রী, ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি বাস মালিকদের]

Advertisement
Next