‘টিকা নেওয়ার ন্যূনতম বয়স কমিয়ে ২৫ করা হোক’, প্রধানমন্ত্রীকে আরজি সোনিয়ার

09:20 PM Apr 17, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিজের রেকর্ড প্রতিদিন নিজেই ভাঙছে মারণ করোনা ভাইরাস (Coronavirus)। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আরও দ্বিগুণ শক্তি নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েছে ভারতে (India)। মিউট্যান্ট স্ট্রেনে বাড়ছে সংক্রমণ, মৃত্যুর হার। সর্বকালীন রেকর্ড গড়ছে দৈনিক সংক্রমণ। এই পরিস্থিতিতে শনিবার বিশেষ বৈঠকে বসেন কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধী, প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভঢরা, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ও অন্যান্য শীর্ষস্থানীয় কংগ্রেস নেতারা। বৈঠকে নেতানেত্রীরা সকলেই একযোগে কাঠগড়ায় তুললেন কেন্দ্রীয় সরকারকে। তাঁদের অভিযোগ, সরকার পর্যাপ্ত সময় পেয়েও যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে পারেনি। আর সেই কারণেই নতুন করে মাথাচাড়া দিয়েছে মারণ ভাইরাস।

Advertisement

এদিনের বৈঠকে রাহুল গান্ধী রীতিমতো কেন্দ্রীয় সরকারকে আক্রমণ করে বলেন, বিশ্বের বৃহত্তম ভ্যাকসিন নির্মাতা হয়েও ভারত করোনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত দেশের অন্যতম হয়ে উঠেছে। তিনি বলেন, ”সরকারের উচিত ছিল ঠিকমতো প্রস্তুত হওয়া। ওদের হাতে এক বছর ছিল। কিন্তু তাতেও ওরা প্রস্তুত হতে পারেনি।”
প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভঢরা অভিযোগ করেন, এই মুহূর্তেই জনসভাগুলি বন্ধ করা উচিত। বন্ধ করে দেওয়া উচিত ‘সুপার স্প্রেডার’ ইভেন্টগুলিও। তাঁর ইঙ্গিত থেকে স্পষ্ট, কুম্ভমেলার বিপুল জনসমাগমের কথাই বলতে চেয়েছেন তিনি। সেই সঙ্গে উত্তরপ্রদেশে দ্রুতহারে বাড়তে থাকা করোনা সংক্রমণের প্রসঙ্গও তোলেন তিনি। প্রসঙ্গত, উত্তরপ্রদেশের কংগ্রেস সভাপতি প্রিয়াঙ্কা।

[আরও পড়ুন: চট্টগ্রামে কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রে বিক্ষোভ, পুলিশের গুলিতে ৫ শ্রমিকের মৃত্যু]

বৈঠকশেষে প্রধানমন্ত্রীকে লেখা একটি চিঠিতে সরকারকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন কংগ্রেসের অন্তর্বর্তী সভাপতি সোনিয়া গান্ধী। তিনি দাবি করেন, অবিলম্বে টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রে ন্যূনতম বয়স ৪৫ থেকে কমিয়ে ২৫ করা উচিত। তাঁর আরও অভিযোগ, বহু রাজ্যই ভ্যাকসিন থেকে অক্সিজেন কিংবা ভেন্টিলেটরের ঘাটতি সম্পর্কে জানিয়েছে সরকারকে। কিন্তু সরকার সেই সব আরজিতে কোনও রকম কর্ণপাত করেনি।

এদিকে দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে এদিন মুখ খোলেন এইমসের ডিরেক্টর রণদীপ গুলেরিয়া। তিনি বলেন, ”আমাদের বুঝতে হবে, এই সময়ে দেশে নির্বাচন চলছে। অনুষ্ঠিত হচ্ছে ধর্মীয় অনুষ্ঠানও। কোনও ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত না দিয়েও আমাদের চেষ্টা করতে হবে যাতে কোভিড বিধি মেনে যথাযথ ভাবে সবটা পালন করা যায়।” তবে তিনি মনে করিয়ে দেন, কোনও ভ্যাকসিনই ১০০ শতাংশ নিখুঁত নয়।

[আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত সোনু সুদ, এই অবস্থাতেও সাহায্য প্রার্থীদের দিলেন বিশেষ বার্তা]

Advertisement
Next