Advertisement

ভোটযুদ্ধে পরাজিত সায়নীকে ‘বাজিগর’তকমা দিয়ে সান্ত্বনা রাজের, কী লিখলেন?

02:47 PM May 03, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্পর্শকাতর বারাকপুর (Barrackpur) কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছিলেন। ঝামেলার মধ্যেই মনোনয়ন পেশ করেছিলেন। তবে শেষ হাসি তিনিই হেসেছেন। বারাকপুর কেন্দ্রে জয় পেয়েছেন রাজ চক্রবর্তী (Raj Chakraborty)। অথচ আসানসোল দক্ষিণ কেন্দ্রের (Asansol Dakshin) দুয়ারে দুয়ারে গিয়ে প্রচার করেও সাফল্য পাননি তৃণমূলের আরেক তারকা প্রার্থী সায়নী ঘোষ (Saayoni Ghosh)।  কিন্তু সায়নীর অক্লান্ত পরিশ্রমকে কুর্নিশ জানিয়েছেন অনেকেই। টলিপাড়ার সহকর্মীকে সান্ত্বনা দিলেন রাজও।

Advertisement

সোমবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি ফ্যানপেজ থেকে সায়নীর ছবি টুইট করে লেখা হয়, “তোমার লড়াই বাংলা মনে রাখবে। মনে রাখবে তোমার হার না মানা অদম্য জেদ। তুমি হেরে যাওনি, তুমি পেয়েছো আসানসোলবাসীর ভালোবাসা। সায়নী আজ তুমি বিধায়ক হতে পারলে না কিন্তু আগামী দিন আমরা তোমায় সাংসদ হিসেবে দেখছি। এগিয়ে চলো।” এই টুইট শেয়ার করে সায়নী লিখেছিলেন “খেলা হবে”। তার উত্তরেই রাজ লেখেন, “হার কে জিতনেওয়ালে কো হি বাজিগর কহতে হ্যায় সায়নী। অনেক বড় কিছু তোমার জন্য অপেক্ষা করে রয়েছে। সময়কে আসতে দাও।”

[আরও পড়ুন: প্রথমবার নির্বাচনে লড়ে BJP’র কাছে হার দক্ষিণী সুপারস্টার কমল হাসানের, জানেন কত ভোটে?]

রাজের এই টুইটের উত্তরে সায়নী আবার লেখেন, “বিধায়ক চকো, এবার পরিবর্তন আনো, আমি ততক্ষণে তোমার সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার প্রস্তুতি নিই। জয় বাংলা।”

আসানসোল দক্ষিণ কেন্দ্রে জয়ী হয়েছেন বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পল (Agnimitra Paul)।  তবে সায়নী ঘোষের লড়াইয়ের প্রশংসা করেছেন অনেকেই। ভোটের আগেই রাজনীতিতে যোগ দিয়েছিলেন সায়নী। প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণা হতেই নেমে পড়েছিলেন রাস্তায়।  সায়নীকে ‘স্ট্রিট ফাইটার’ বলে তাঁর প্রশংসা করেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও (Mamata Banerjee)।

[আরও পড়ুন: ‘একটু বারমুডা পরব না?’, তৃণমূলের জয়ের পর দিলীপ ঘোষকে বিদ্রুপ স্বস্তিকা-মিমির ]

Advertisement
Next