Advertisement

রোগীকে সাহায্য করতে চেয়েও পারেননি, সোশ্যাল মিডিয়ায় হতাশা প্রকাশ স্বস্তিকার

12:11 PM May 10, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অতিমারীর সময় একের পর এক পোস্ট করে চলেছেন। শুধু নিজের শহর কলকাতা নয়, দিল্লি থেকে বেঙ্গালুরু পর্যন্ত কোনও মানুষের বিপদের কথা জানতে পারলেই তা শেয়ার করছেন নিজের সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলে। সাধ্যমতো সাহায্য পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টাও করছেন। কিন্তু কিছু জায়গায় চেয়েও সাহায্য করা যাচ্ছে না। কারণ ফোন তুলছেন না তাঁরা। টুইটারে এনিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় (Swastika Mukherjee)।

Advertisement

সোমবার সকালে নিজের টুইটার (Twitter) প্রোফাইলে স্বস্তিকা লেখেন, “মানুষজন আসছেন। তাঁরা সাহায্য চাইছেন এবং তারপর তাঁরা আর ফোন ধরছেন না কিংবা মেসেজ করে উত্তরও দিচ্ছে না। ঘণ্টার পর ঘণ্টা ধরে এই পরিস্থিতিতে রয়েছি যেখানে প্রত্যেকটা মিনিট গুরুত্বপূর্ণ। চারদিকে মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। দয়া করে ফোন কিংবা অন্য মাধ্যমে উত্তর দিন। এটা চূড়ান্ত হতাশার। কী বাজে দিন!” স্বস্তিকার এই টুইটের প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে একজন লিখেছেন, “এটা হতাশার হতে পারে কিন্তু তাঁরাও নরকের সমান যন্ত্রণার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন।” তার উত্তরে আবার নায়িকা লেখেন, “তা ঠিক কিন্তু আমরা বোঝা কমানোর চেষ্টা করছি। কোনও প্রতিক্রিয়া না মেলায় ডোনার ও বেড হাত থেকে চলে যাচ্ছে। এই সময়ে এগুলো অ্যারেঞ্জ করা খুব কঠিন।”

[আরও পড়ুন: ‘চিকিৎসা পেলে বেঁচে যেতাম’, মৃত্যুর আগে মোদিকে ট্যাগ করে পোস্ট ইউটিউবারের]

অবশ্য হতাশ হলেও করোনার (Corona Virus) বিরুদ্ধে নিজের ভারচুয়াল যুদ্ধের পালা অব্যাহত রেখেছেন স্বস্তিকা। এই টুইটের প্রেক্ষিতেই একজন সাহায্য চান। তাঁর কাছে আবার ফোন নম্বর চেয়ে টুইট করেন স্বস্তিকা। বেহালার গুরুদ্বারে ‘অক্সিজেন লঙ্গর সেবা’ ক্যাম্পের হদিশও দিয়েছেন টলিউড অভিনেত্রী। পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, সৃজিত মুখোপাধ্যায়, অনুপম রায়, ঋদ্ধি সেন, ঋতব্রত মুখোপাধ্যায়রাও একইভাবে এই কাজ করে চলেছেন। 

[আরও পড়ুন: টুইটারে বিতাড়িত হওয়ার পর ইনস্টাগ্রামে করোনা সংক্রান্ত পোস্ট ডিলিট, বিদ্রুপ কঙ্গনার]

Advertisement
Next