Advertisement

‘মেডেল পেলেই ভারতীয়, না হলেই চিঙ্কি’, Mirabai chanu নিয়ে মুখ খুললেন মিলিন্দের স্ত্রী Ankita

04:03 PM Jul 28, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টোকিও অলিম্পিকে ( Tokyo olympics) ভারোত্তোলনে রুপো জিতে দেশে ফিরেছেন ইম্ফলের মেয়ে মীরাবাই চানু (Mirabai chanu)। অলিম্পিকে পদক জিতে গোটা দেশেই হইচই ফেলে দিয়েছেন তিনি। সব মহলই চানুর প্রশংসায় পঞ্চমুখ। তবে উত্তর-পূর্ব ভারতের মানুষেরা যেভাবে নানা সময়ে বৈষম্যের মুখে পড়েন, তার উদাহরণ দিয়েই প্রতিবাদে ফেটে পড়লেন মিলিন্দ সোমনের (Milind Soman) স্ত্রী অঙ্কিতা কোঁওর (Ankita Konwar)। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে রীতিমতো গর্জে উঠলেন অঙ্কিতা।

Advertisement

উত্তরপূর্বের মানুষদের নিয়ে দেশের বহুমানুষই নানা সময়ে নানা সমালোচনা করে থাকে। অনেকে তো এসব মানুষদের ভারতীয় বলেই গণ্য করেন না। উত্তর পূর্বের মানুষদের নিয়ে এরকম ঠাট্টা বহুদিনের। এই অভ্যাসের বিরুদ্ধেই এবার মুখ খুললেন অঙ্কিতা।

[আরও পড়ুন: Monica, O My Darling: প্রথমবার একফ্রেমে রাজকুমার-হুমা-রাধিকা, প্রকাশ্যে ফার্স্ট লুক]

অঙ্কিতা ইনস্টাগ্রামে (Instagram) লিখলেন, ‘আপনি যদি উত্তর-পূর্ব ভারতের বাসিন্দা হন। তাহলে আপনাকে কখনও চিঙ্কি, কখনও চাইনিজ, কখনও করোনা ডাকা হবে। একমাত্র দেশের হয়ে পদক জিতলেই আপনি ভারতীয়। এই মানুষেরাই আপনাকে নিয়ে হইচই করবে। একেই হিপোক্রিসি বলে।’

অসমের মেয়ে অঙ্কিতা পেশায় ছিলেন বিমানসেবিকা। ঘটনাচক্রে আলাপ হয় তাঁর থেকে ২৬ বছরের বড় মিলিন্দ সোমনের সঙ্গে। প্রথম থেকেই সুপার মডেল মিলিন্দের ফ্যান ছিলেন অঙ্কিতা। নিজেই মিলিন্দের কাছে গিয়ে আলাপ করেছিলেন। সেই আলাপ থেকেই বন্ধুত্ব, তারপর প্রেম। ২০১৮ সালে ছিমছাম অনুষ্ঠানে সাত পাকে বাঁধা পড়েন মিলিন্দ ও অঙ্কিতা। এই বিয়ে নিয়েও তুমুল বিতর্ক উঠেছিল। তবে সে সব নিয়ে একেবারেই মাথা ঘামাতে চাননি অঙ্কিতা কোঁওর।

[আরও পড়ুন:বিয়ে করতে চলেছেন ‘শ্রীময়ী’ ইন্দ্রাণী ও ‘রোহিত সেন’ টোটা! ঘুরবে কি গল্পের মোড়?]

Advertisement
Next