Advertisement

‘বিয়ে একটা পবিত্র প্রথা’, ডিভোর্স নিয়ে টানাপোড়েনের মাঝেই স্ত্রীর সঙ্গে মীমাংসার ইঙ্গিত নোবেলের

01:27 PM Oct 11, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দাম্পত্য কলহ গড়িয়েছিল আদালত পর্যন্ত। বিচ্ছেদের নোটিস পাঠিয়েছিলেন স্ত্রী। রবিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় পাত্রীর সন্ধানও শুরু করেছিলেন বিতর্কিত সংগীত শিল্পী মইনুল আহসান নোবেল। ২৪ ঘণ্টা পেরতে না পেরতেই ভোলবদল। এবার ফেসবুকে লিখলেন, “বিয়ে একটা পবিত্র প্রথা, অনুগ্রহ করে বেফাঁস মন্তব্য করে এর পবিত্রতা নষ্ট করবেন না।”

Advertisement

 

আচরণের জন্য বরাবরই বিতর্কে জড়িয়েছেন ‘সারেগামাপা’- খ্যাত বাংলাদেশি সংগীত শিল্পী নোবেল (Mainul Ahsan Nobel)। তাঁর ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও কম কাটাছেঁড়া হয়নি। কারণ, বিয়ের প্রথম দিকটা স্বাভাবিক থাকলেও, কিছুদিন আগেই ছন্দপতন হয়েছে। প্রকাশ্যে এসেছিল তাঁদের দাম্পত্যকলহের কথা। ১১ সেপ্টেম্বর নোবেলকে বিচ্ছেদের নোটিস পাঠিয়েছিলেন স্ত্রী সালসাবিল। তারপরই ফেসবুক পোস্টে ‘ডিভোর্স’ (Divorce) লেখেন নোবেল। বিচ্ছেদের নোটিস হাতে পেলেও মোটেও বিচলিত নন বলেই দাবি করেছিলেন বাংলাদেশি গায়ক। এরপরই প্রকাশ্যে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। সালসাবিল দাবি করেন, একাধিক নারীর প্রতি আকৃষ্ট নোবেল। তারপরই স্ত্রীর বিরুদ্ধে উষ্মাপ্রকাশ করেন নোবেল। টাকার লোভে স্ত্রী তাঁকে খুন করার চেষ্টা করেছিল বলেও অভিযোগ করেন। আবারও বিয়ে করার পরিকল্পনা করেন নোবেল। দাবি করেন, এবার সুন্দরী, ভাল কোনও মেয়েকে বিয়ে করবেন।

[আরও পড়ুন: Nusrat Jahan-Yash Dasgupta: সোশ্যাল মিডিয়াতেই যশকে ‘স্বামী’ হিসেবে স্বীকার নুসরতের!]

এসবের মাঝেই পাত্রীর সন্ধান শুরু করেছিলেন নোবেল (Mainur Ahsan Noble)! সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো ‘পাত্রী চাই’ পোস্ট করেছিলেন তিনি। এহেন আচরণের জেরে নেটিজেনরা তুলোধোনা করতেও ছাড়েনি সদা বিতর্কিত এই গায়ককে। পাত্রীর সন্ধানের ঠিক পরের দিন অন্য সুর নোবেলের গলায়। সোমবার সকালে ফেসবুকে নোবেল লিখলেন, “আমার এবং আমার স্ত্রীর মধ্যকার সকল বিবাদ পারিবারিক ভাবে মীমাংসা করা হচ্ছে। বিগত কিছুদিনের কাদা ছোড়াছুড়ির জন্য বিনীত ভাবে দু:খিত। বিয়ে একটা পবিত্র প্রথা, অনুগ্রহ করে বেফাঁস মন্তব্য করে এর পবিত্রতা নষ্ট করবেন না।”

এই পোস্ট অনুযায়ী, বিচ্ছেদ নয়, বরং সালসাবিলের সঙ্গে নোবেলের সমস্যা মেটানোর চেষ্টাই করা হচ্ছে দুই পরিবারের তরফে। এমনকী নোবেল নিজেও সেটাই চাইছেন। নেটিজেনদের লাগাতার কটাক্ষে ক্লান্ত বিতর্কিত এই সংগীত শিল্পী।

[আরও পড়ুন: মাদক মামলায় জামিনের মেয়াদ বাড়ানোর আবেদনে আদালতে গিয়েই অসুস্থ পরীমণি]

Advertisement
Next