উত্তরাখণ্ডে ১০০ দিনের কাজে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা, মাটির তলায় চাপা পড়লেন পাঁচ মহিলা শ্রমিক

06:44 PM Jun 22, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে গেল উত্তরাখণ্ডে (Uttarakhand)। একশ দিনের কাজে মাটি কাটতে গিয়ে পাহাড় থেকে হঠাৎ নামা ধসে চাপা পড়লেন ৫ মহিলা শ্রমিক। তাঁদের মধ্যে একজনের মৃত্যু হয়েছে ঘটনাস্থলেই। বাকি ৪ জনকে উদ্ধার করা গেলেও তাঁদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানা গিয়েছে। দেরাদুনের (Dehradun) হাসপাতালে আহতদের চিকিৎসা চলছে।

Advertisement

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার সকাল সাড়ে সাতটা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে উত্তরকাশি জেলার (Uttarkashi District) মোরি (Mori) এলাকায়। স্থানীয় গোবিন্দ পশু বিহার জাতীয় উদ্যান (Govind Pashu Vihar National Park and Sanctuary) চত্বরে একশো দিনের কাজে মাটি কাটতে গিয়েছিলেন ওই পাঁচ শ্রমিক। পাহাড়ি এলাকায় তুলনামূলক কিছুটা নীচু জায়াগায় নেমে মাটি কাটছিলেন স্থানীয় গ্রামের বাসিন্দা পাঁচ মহিলা। সেই সময়েই আচমকা পাহাড়ে ধসে নামে। তাতেই পাথুরে মাটির নীচে চাপা পড়ে যান পাঁচজন মহিলা। স্থানীয়রাই উদ্ধার কাজে হাত লাগায়। পরে খবর পায় প্রশাসন।

[আরও পড়ুন: সেনাকে দুর্বল করবে অগ্নিপথ, এই প্রকল্প প্রত্যাহার করতেই হবে, দাবি রাহুল গান্ধীর]

খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেয় পুলিশ। খবর দেওয়া হয় রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকে (State Disaster Response Force)। পুলিশ ও বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যরা যতক্ষণে ঘটনাস্থলে পৌঁছান ততক্ষণে চাপা পড়া পাঁচ মহিলাকেই উদ্ধার করে ফেলেছেন স্থানীয়রা। যদিও তাঁদের মধ্যে একজনের তত সময়ে মৃত্যু হয়েছে। মৃতা মহিলার সুরি দেবী (৩৫)। তিনি ফিতাদি গ্রামের বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। অন্যদিকে গুরুতর আহত হয়েছেন সুশীলা দেবী (৩৮), কস্তুরী (৩৭), বিপিনা দেবী (৩২) এবং রাজেন্দ্রী। আহতদের প্রথমে মোরির প্রাথমিক চিকিৎসাকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হলেও অবস্থার অবনতি হয়। এরপর তাঁদের হেলকপ্টারে করে দেরাদুনে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে সেখানকার হাসপাতলে তাঁদের চিকিৎসা চলছে ।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: অটোচালক থেকে মহারাষ্ট্রের প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব, কে এই একনাথ শিণ্ডে?]

রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর এক সদস্য বলেন, “জানতে পেরেছি ওঁরা মহাত্মা গান্ধী জাতীয় কর্মসংস্থান প্রকল্পে (Mahatma Gandhi National Rural Employment Guarantee Act) মাটি কাটার কাজ করছিলেন। লিখিত তথ্য হাতে পেলেই বাকিটা বলা সম্ভব হবে।”

Advertisement
Next