Advertisement

‘১৫ বছরেই তো মেয়েরা মা হতে পারে’, বিয়ের বয়স বাড়ানো নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য কংগ্রেস নেতার

01:51 PM Jan 14, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ১৫ বছরেই তো সন্তানের জন্ম দিতে পারে মেয়েরা। তাহলে মেয়েদের বিয়ের বয়স (Marriage age) ১৮ থেকে বাড়িয়ে ২১ করা হবে কেন? এমনই প্রশ্ন তুলে বিতর্কে জড়িয়েছেন মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) প্রাক্তন মন্ত্রী ও কংগ্রেস (Congress) নেতা সজ্জন সিং ভার্মা। এই মন্তব্যের জবাবে তাঁকে আক্রমণ করে বিজেপির (BJP) তরফে অভিযোগ তোলা হয়েছে, এমন কথা বলে তিনি ভারতের নারীদের অপমান করেছেন। কংগ্রেস অবশ্য জানিয়েছে, সজ্জনের মন্তব্যকে ভুল বোঝা হয়েছে।
গত সোমবার মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান (Shivraj Singh Chouhan) ‘নারী সম্মান’ অনুষ্ঠানে মেয়েদের বিয়ের বয়স ১৮ থেকে বাড়িয়ে ২১ করার পক্ষে সওয়াল করেন। প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আগেই এই বিষয়ে মুখ খুলেছিলেন। এব্যাপারে একটি কমিটিও তৈরি করা হয়েছে। তাদের রিপোর্ট পাওয়ার পরই পদক্ষেপ করবে কেন্দ্র। শিবরাজের বক্তব্যে ছিল সেই কথারই সুর।

Advertisement

[আরও পড়ুন: কে খালিস্তানি বলল ভাবেন না, বিক্ষোভরত কৃষকদের নিরলস সেবা করে চলেছে ইউনাইটেড শিখ]

শিবরাজকে কটাক্ষ করে সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে ঠিক কী বলেছিলেন সজ্জন? তাঁর কথায়, ”ডাক্তাররাই তো বলেছেন একটি ১৫ বছরের মেয়েও সন্তান উৎপাদন করতে পারে, তাহলে বিয়ের বয়স বাড়িয়ে ১৮ থেকে ২১ করার কী দরকার? শিবরাজ কি ডাক্তারদের চেয়েও বড় হয়ে গেলেন?” সেই সঙ্গে তিনি মধ্যপ্রদেশে লাফিয়ে লাফিয়ে নাবালিকা ধর্ষণ বাড়ছে বলেও উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি। সজ্জন বলেন, ”মধ্যপ্রদেশ নাবালিকা ধর্ষণের ঘটনায় দেশের মধ্যে শীর্ষ। সে ব্যাপারে কড়া পদক্ষেপ না করে ভণ্ডামির রাজনীতি করে চলেছেন!”
স্বাভাবিকভাবেই তাঁর এমন মন্তব্যকে ভালভাবে নিচ্ছে না বিজেপি। রাজ্যে গেরুয়া শিবিরের মুখপাত্র নেহা বাগ্গার অভিযোগ, এমন মন্তব্যে অপমানিত হয়েছেন দেশের সব নারী। তিনি জানিয়েছেন,”উনি কি ভুলে গেলেন ওঁর দলে সভাপতি একজন মহিলা? প্রিয়াঙ্কা গান্ধী একজন মহিলা? আমার সোনিয়া গান্ধীর কাছে আরজি, উনি যেন সজ্জনকে জনসমক্ষে ক্ষমা চাইবার নির্দেশ দেন এবং দল থেকেও বের করে দেন।”

[আরও পড়ুন: পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার আশঙ্কা, হাসপাতাল ছাড়া করোনার টিকা নেবেন না পুর চিকিৎসকরা]

বিজেপির এমন অভিযোগের পালটা জবাব দিয়েছে কংগ্রেসও। দলের মুখপাত্র ভূপেন্দ্র গুপ্ত উপস্থিত ছিলেন সজ্জনের সেই সাংবাদিক সম্মেলনে। তাঁর বক্তব্য, সজ্জন কেবল মুখ্যমন্ত্রীর কথার পিছনে কী উদ্দেশ্য সেটাই জানতে চেয়েছেন। তাঁর কথায়, ”বিজেপি বিনা কারণে এটাকে ইস্যু করতে চাইছে। সজ্জন কেবল জানতে চেয়েছিলেন মেয়েদের বিয়ের বয়স বাড়িয়ে ২১ করার পিছনে কোনও গবেষণার কথা মুখ্যমন্ত্রী জানেন কিনা।” তাঁর দাবি, কেবল মিডিয়ার প্রচারে আসতে চেয়েই এমন মন্তব্য করেছেন শিবরাজ।

Advertisement
Next