‘উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে তুচ্ছ কারণে ভোট দেয়নি’, দলীয় মুখপত্রের দায়িত্ব নিয়ে TMC’কে নিশানা উদ্ধবের

05:29 PM Aug 08, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শিব সেনার মুখপত্র ‘সামানা’র সম্পাদকের দায়িত্ব নিয়েই তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং এনসিপিকে নিশানা করলেন উদ্ধব ঠাকরে। শিব সেনার (Shiv Sena) মুখপত্রের সম্পাদকীয়তে লেখা হয়েছে, “তুচ্ছ কারণে উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে তৃণমূলের ভোটদান থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত আমাদের কাছে বেশ চিন্তার।” শুধু বিরোধী নেতৃত্ব নয়, ইডি-সিবিআই (CBI) দিয়ে বিরোধী কণ্ঠরোধের কেন্দ্রের অপচেষ্টার তীব্র নিন্দা করা হয়েছে সামানার সম্পাদকীয়তে।

Advertisement

শিব সেনার মুখপত্র সামানার সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন সঞ্জয় রাউত (Sanjay Raut)। আপাতত দুর্নীতি কাণ্ডে বিচারবিভাগীয় হেফাজতে রয়েছেন তিনি। ২২ আগস্ট পর্যন্ত তাঁকে সেখানে থাকতে হবে। এই পরিস্থিতিতে মুখপত্রের রাশ হাতে নিয়েছেন উদ্ধব। এরপর প্রকাশিত প্রথম সংখ্যার সম্পাদকীয়তেই বিজেপির (BJP) পাশাপাশি তৃণমূল এবং শরদ পওয়ারের এনসিপিকে আক্রমণ করা হল।

[আরও পড়ুন: ‘চোর, গরুচোর’, SSKM থেকে বেরনোর সময় অনুব্রতকে লক্ষ্য করে স্লোগান রোগীর আত্মীয়দের]

ইডি-সিবিআইকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার নিয়ে কেন্দ্রকে তুলোধোনা করা হয়েছে। সামানার সম্পাদকীয়তে লেখা হয়েছে, “বিরোধী নেতাদের আচরণ সংশয় বাড়াচ্ছে। এটা গণতন্ত্র এবং স্বাধীনতার জন্য চিন্তার।” আরও লেখা হয়েছে, ইডিকে ব্যবহার করে মহারাষ্ট্রের সরকার ফেলা হয়েছে। নতুন সরকার শপথ নিয়েছে। এই পথ ব্যবহার করে মুদ্রাস্ফীতি, মূল্যবৃদ্ধি, বেকারত্বের বিরুদ্ধে ওঠা স্বরকে দমাতে চাইছে কেন্দ্র। যারা নিজেদের ল্যাজ ওদের পায়ে গুঁজে বসে আছে, এটা তাদের মাখায় রাখা উচিত।”

Advertising
Advertising

এই প্রথমবার তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিরুদ্ধেও সুর চড়ানো হয়েছে ‘সামানা’র সম্পাদকীয়তে। লেখা হয়েছে, “তুচ্ছ কারণে উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট দেয়নি তৃণমূল সাংসদরা। এটা আমাদের কাছে গুরুতর বিষয়। বাংলায় ইডি-সিবিআই তৎপর হয়েছে। রাহুল গান্ধী, সোনিয়া গান্ধীদেরও নিশানা করছে ইডি। তবু মূল্যবৃদ্ধি, বেকারত্ব ইস্যুতে রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ করছেন ওঁরা।” কংগ্রেসের আন্দোলনে যোগ না দেওয়ায় পুরনো জোটসঙ্গী শরদ পওয়ারের এনসিপিকেও নিশানা করেছে শিব সেনা। তবে দায়িত্ব পাওয়ার পরই উদ্ধব ঠাকরে দলীয় মুখপত্রে যেভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করেছে তা বেশ তাৎপর্যপূর্ণ।

[আরও পড়ুন: দূরত্ব বাড়ছে বিজেপি-জেডিইউর, বিহার সরকার ভাঙার ছক কষছেন অমিত শাহ?]

শিব সেনার দাবি, বিজেপির আসল শক্তি লুকিয়ে বিরোধীদের অনৈক্যের মধ্যে। তাই নিজেদের স্বার্থ, মতপার্থক্য ভুলে একজোট হতে হবে বিরোধীদের। তবে বিজেপিকে হারানো সম্ভব বলে দাবি করেছে শিব সেনা।

Advertisement
Next