নয়া দুর্নীতির অভিযোগ, লালু ও তাঁর মেয়ের বাড়ি-সহ ১৭ জায়গায় তল্লাশি সিবিআইয়ের

09:06 AM May 20, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদবের (Lalu Prasad Yadav) বিরুদ্ধে নতুন দুর্নীতির অভিযোগ। পাটনায় লালুর বাড়ি-সহ বিহার ও দিল্লির ১৭টি ঠিকানায় তল্লাশি সিবিআইয়ের। তল্লাশি চালানো হয়েছে লালুর এক মেয়ের ঠিকানাতেও।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, রেলমন্ত্রী থাকাকালীন একাধিক নিয়োগ সংক্রান্ত মামলায় দুর্নীতিতে যুক্ত ছিলেন তিনি। একাধিক পদে অর্থ বা জমির বিনিময়ে নিয়োগ করার অভিযোগ ছিল লালুর মেয়ের বিরুদ্ধেও। তবে, ঠিক কোন নিয়োগে বা কত টাকার দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়েছে, তা এখনও স্পষ্ট নয়। পশুখাদ্য কেলেঙ্কারি মামলায় গত মাসেই জেল থেকে মুক্তি পেয়েছেন লালু। তারপরই তাঁর বিরুদ্ধে নয়া মামলা প্রকাশ্যে এল।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: ‘আম্বানি-আদানিকে টার্গেট করা বন্ধ করুন’, কংগ্রেস ছাড়তেই পুরনো দলকে খোঁচা হার্দিকের]

প্রসঙ্গত, এর আগে পশুখাদ্য কেলেঙ্কারিতে (Fodder Scam) মোট পাঁচটি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন লালুপ্রসাদ যাদব। ওই মামলায় ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসে প্রথমবার জেলে যেতে হয় তাঁকে। তারপর থেকে দীর্ঘদিন জেলেই ছিলেন বিহারের প্রবীণ নেতা। এর মধ্যে শারীরিক অসুস্থতার কারণে একাধিকবার হাসপাতালেও ভরতি করতে হয় লালুকে। ২০২০ বিহার বিধানসভা নির্বাচনেও আরজেডিকে লড়তে হয় তাঁর অনুপস্থিতিতেই।

[আরও পড়ুন: ‘নীতিহীন দল’, বিজেপিতে যোগ দিয়েই কংগ্রেসকে তোপ সুনীল জাখরের]

যদিও গতমাসে পশুখাদ্য কেলেঙ্কারির সবকটি মামলাতে জামিন পেয়ে যান আরজেডির (RJD) প্রতিষ্ঠাতা। জেল থেকে মুক্তিও পান তিনি। কিন্তু লালুর সেই ‘মুক্তি’ কতদিন স্থায়ী হবে তা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে নতুন মামলা প্রকাশ্যে আসায়। যদিও আরজেডি সূত্রের দাবি, রাজনৈতিক ভাবে তাঁদের বিরোধিতা করতে না পেরে বিজেপি (BJP) কেন্দ্রীয় এজেন্সিকে ব্যবহার লালুর বিরুদ্ধে।

Advertisement
Next