নাথুরাম গডসের মন্দির গড়ার দাবি জানিয়েছিলেন, সেই নেতাকেই দলে নিল কংগ্রেস!

12:37 PM Feb 25, 2021 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি নাথুরাম গডসের (Nathuram Godse) ‘ভক্ত’। গান্ধী হত্যাকারীর মন্দির গড়ার দাবি জানিয়েছিলেন। হিন্দু মহাসভার (Hindu Mahasabha) সদস্য হিসেবে ভোটে জিতে কাউন্সিলরও হয়েছিলেন। সেই বাবুলাল চৌরাসিয়া যোগ দিলেন কংগ্রেসে (Congress)। তাঁর হাতে পুষ্পস্তবক তুলে দিয়ে তাঁকে দলে স্বাগত জানালেন মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ (Kamal Nath)। নাথুরাম গডসেকে ‘দেশভক্ত’ বলায় বিজেপি নেত্রী ও সাংসদ সাধ্বী প্রজ্ঞাকে আক্রমণ করেছিল কংগ্রেস। অথচ তারাই কী করে বাবুলালকে দলে নিল, তা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে।

Advertisement

বাবুলাল অবশ্য আগে কংগ্রেসেই ছিলেন। তবে পরে তিনি নির্বাচনে দাঁড়ানোর টিকিট না পেয়ে ‘হাত’ ছাড়েন। যোগ দেন হিন্দু মহাসভায়। ভোটে জিতে কাউন্সিলরও হন কংগ্রেস প্রার্থীকে হারিয়ে। এদিকে ২০১৯ সালে গডসের ৭০তম মৃত্যু দিবস পালন করে হিন্দু মহাসভা। তাদের মতে সেটা ‘বলিদান দিবস’। পরে জেলা প্রশাসনের কাছে গডসের মূর্তি ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি তোলে তারা। প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে হিন্দু মহাসভা নিজেদের অফিসেই গডসের ওই মূর্তি বসিয়ে কার্যত ‘মন্দির’ তৈরি করে। কিন্তু অচিরেই সেই মূর্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়। দু’বছর পরে সেই মূর্তিই ফেরত চেয়েছিল হিন্দু মহাসভা। জমা দেওয়া স্মারকলিপির অন্যতম স্বাক্ষরকারী ছিলেন বাবুলাল। সেই সঙ্গে তিনি দাবি করেছিলেন, এক লক্ষ মানুষের কাছে আদালতে গডসের শেষ বিবৃতি পৌঁছে দেবেন। অবশেষে সেই ঘোর ‘গডসে ভক্ত’কেই দলে স্বাগত জানাল কংগ্রেস।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: ‘ব্যবসা সরকারের কাজ নয়’, ১০০টি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার বেসরকারিকরণের পক্ষে সওয়াল মোদির]

হিন্দু মহাসভা এবছর ফের শিরোনামে আসে গডসের নামে ‘জ্ঞানশালা’ নামের লাইব্রেরি খোলার পরে। দেশজুড়ে শুরু হওয়া প্রবল বিতর্কের মধ্যে সেই লাইব্রেরি অবশ্য দিন কয়েকের মধ্যেই বন্ধ করে দিতে হয়। সেই সময় মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানকে আক্রমণ করে কমল নাথ দাবি করেন, যদি বিজেপি মহাত্মা গান্ধীর আদর্শকে শ্রদ্ধা করে এবং মেনে চলতে চায় তবে অবিলম্বে গডসের নামে লাইব্রেরি বন্ধ করা হোক। টুইটারে খোঁচা মেরে তিনি লেখেন, ”শিবরাজ সরকারে মহাত্মা গান্ধীর খুনি নাথুরাম গডসেকেও উপাসনা করা হয়।” কিন্তু এবার বাবুলালের মতো গডসে-ভক্তকেই কমল নাথরা নিজেদের দলে নেওয়ায় সেই বিতর্কে নতুন আঁচ পড়ল।

[আরও পড়ুন: গোপন অপারেশনে সাফল্য, গণধর্ষণের ২২ বছর পরে পুলিশের জালে ওড়িশার অভিযুক্ত]

Advertisement
Next