হর্নের শব্দ শুনতে পাননি, রাগে বধির সাইকেল আরোহীকে কুপিয়ে খুন! কাঠগড়ায় কিশোরী

12:25 PM Jul 26, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘক্ষণ হর্ন বাজালেও সরছেন না, অধৈর্য হয়ে সামনে থাকা বধির সাইকেল আরোহীর ঘাড়ে ছুরির কোপ বসাল এক কিশোরী। অতর্কিত আক্রমণে সেই সাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়। ঘটনাটি ঘটেছে ছত্তিশগড়ের রাজধানী রায়পুরে( Raipur)।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ১০ বছরের সম্পর্ক, যৌথভাবে সম্পত্তি কিনেছিলেন পার্থ-অর্পিতা! জোরাল দাবি ইডির]

কিশোরীর বয়স মাত্র ১৬। ঘটনার দিন সে স্কুটি চালিয়ে যাচ্ছিল। সঙ্গে ছিল তার মা। রাস্তায় সামনে চলে আসে ওই মূক ও বধির ব্যক্তিটি (Deaf and dumb man)। সুদামা লেদার নামের বছর ৪০ এর ওই বধির ব্যক্তিটি স্থানীয় এলাকার বাসিন্দা। তিনি সাইকেল চালিয়ে প্রয়োজনীয় জিনিস নিয়ে যাচ্ছিলেন। কিশোরী দ্রুত স্কুটি চালিয়ে চলে যেতে চাইছিল। সেই কারণে ক্রমাগত হর্ন বাজাতে থাকে সে। কিন্তু মূক ও বধির ব্যক্তির পক্ষে সেই শব্দ শোনা সম্ভব ছিল না। কিশোরী জানত না সেই ব্যক্তির শারীরিক অবস্থার কথা। কিশোরী মনে করে ব্যক্তিটি অবজ্ঞা করছে তাকে। ইচ্ছা করে তার পথ আটকাচ্ছে। 

এরপরেই প্রচণ্ড রেগে গিয়ে সে সাইকেল আরোহী ব্যক্তিটিকে থামায়। এবং শুরু হয় বচসা। ক্রমাগত চিৎকার করতে করতেই সে সাইকেল আরোহীর ঘাড়ে বসিয়ে দেয় ছুরির কোপ। একাধিক বার কোপ মারার ফলে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় সাইকেল আরোহীর। বেগতিক বুঝে সেই কিশোরী তখনই এলাকা থেকে চম্পট দেয়। কাছেই ছিল আজাদ চক থানা (Azad Chowk police station)। ঘটনার খবর পেয়ে কিশোরীর পিছনে ধাওয়া করে পুলিশবাহিনী।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: এবার মেট্রো স্টেশনে দাঁড়িয়েই চায়ে চুমুক, খুলছে নতুন দোকান]

ওই এলাকার অ্যাডিশনাল সুপারিন্টেন্ডেন্ট ডিসি প্যাটেল জানান, ইতিমধ্যেই কিশোরীকে আটক করা হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে সেই ছুরিটিও। শহর থেকে প্রায় ২০ কিমি দূরে পালিয়ে যায় সেই কিশোরী। মন্দির হাসাউড এলাকা থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। আগের কোন ক্রিমিনাল রেকর্ড আছে কিনা সে বিষয়ে কিছু জানায়নি পুলিশ। কিশোরীর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারা অনুযায়ী খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। আপাতত জুভেনাইল কোর্টে তাকে হাজির করা হবে।

Advertisement
Next