নোট বাতিলের তীব্র সমালোচনা করে মোদিকে ‘তুঘলক’আখ্যা মমতার

04:59 PM Sep 25, 2019 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নোট বাতিলের এক বছর পূর্ণ হওয়ার দিনই নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক ডেকে মোদি সরকারের তীব্র সমালোচনা করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্পষ্ট জানালেন, নোট বাতিলে লাভ হয়েছে শুধু বিজেপির। এর পিছনে বড় কোনও ষড়যন্ত্র রয়েছে। পেটিএমের মতো কিছু সংস্থাকে সুবিধা পাইয়ে দিতেই কি নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত, জল্পনা বাড়িয়ে দিলেন মমতা। বললেন, ‘চিনে এই রকম অ্যাপের বিরুদ্ধে তদন্ত হচ্ছে। তারা নাকি সব তথ্য সরকারকে দেয় না। আর আমাদের তাদের সুবিধার জন্যই কাজ করছে কেন্দ্র।’ নোট বাতিলের সবকটি লক্ষ্যই ব্যর্থ হয়েছে বলেও এদিন তোপ দেগেছেন মমতা।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

এদিন আগাগোড়াই আক্রমণাত্মক ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী মনমোহন সিং, পি চিদাম্বরমদের উদ্ধৃত করে ৫০০ ও ১০০০ টাকার পুরনো নোট বাতিলকে ‘পরিকল্পিত লুট’ বলে উল্লেখ করেন  মুখ্যমন্ত্রী। এই সরকার মানুষের জন্য নয়, বিজেপি ও আরএসএসের জন্য কাজ করে অভিযোগ করেন মমতা। গরিব মানুষের উপর গভীর প্রভাব ফেলেছে নোট বাতিল, একে ‘ডিজাস্টার’ বলেও ব্যাখ্যা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানান, নোট বাতিলের ফলে দেশের অর্থনীতি ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। ৩ লক্ষ কোটি টাকার জিডিপি ক্ষতি হয়েছে। প্ল্যানিং কমিশন, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক, গ্রামীণ ব্যাঙ্ককে ধ্বংস করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর বক্তব্য, ‘এটা কি কোনও পরিকল্পনা করে করা হয়েছে নাকি কারও কারও কালো টাকাকে সাদা করতে এই গভীর ষড়যন্ত্র? ইতিহাসে মহম্মদ বিন তুঘলকের কথা পড়েছি। তিনি এরকম নানান সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। কিন্তু কোনওটাই মানুষের কাজে লাগেনি। এ তো দেখছি একেবারে সেরকমই ঘটনা।’

এ রাজ্যে কারও বাড়িতেই টাকা নেই, কী করে ক্যাশলেস লেনদেন করবেন সাধারণ মানুষ? প্রশ্ন তুলে দিলেন মমতা। পরিসংখ্যান পেশ করে মমতার দাবি, ৭৫ হাজার বিনিয়োগকারী বাধ্য হয়ে ভারত ছেড়েছেন, বিজেপির চাপে এনআরআই হয়ে গিয়েছেন। বিনিয়োগের হার কমেছে। গরিবদের উপর খুব অত্যাচার হয়েছে। অর্থনীতি বেলাইন হয়েছে। এরাজ্যে বড়বাজারে ব্যবসা কমেছে ৮০-৯০%। এমনকী, সুরাটে চাকরি হারিয়েছেন প্রায় এক লক্ষ মানুষ। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন নবান্নে বলেন, ‘নোট বাতিলের গোদের উপর বিষফোঁড়া হয়েছে জিএসটি।’ নোট বাতিলের পর অন্তত ১০০ জন মানুষ মারা গিয়েছেন, ৫০ লক্ষ মানুষের চাকরি গিয়েছে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর বক্তব্য, ‘এই সরকার কেন্দ্রে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছে। মানুষের আস্থা হারিয়েছে বিজেপি। সংসদে বিরোধীরা একজোট।’ বিজেপি সরকার কেন্দ্র থেকে সরলেই নোট বাতিলের আসল রহস্য ফাঁস হবে, আত্মবিশ্বাসী মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর এদিনের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ থেকেই স্পষ্ট, আগামী দিনেও কেন্দ্রের বিরুদ্ধে নোট বাতিল নিয়ে তাঁর আন্দোলনের তীব্রতা বাড়বে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next